বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০১:০৩ অপরাহ্ন

‘নমুনাই দিই নাই, করোনা পজিটিভ হলাম কীভাবে?’

লাইটনিউজ রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন, ২০২০

কুষ্টিয়া শহরের পূর্ব মজমপুরের এক বাসিন্দা পরীক্ষার জন্য নমুনা না দিলেও করোনা ‘পজিটিভ’ বলে জানতে পেরেছেন। বুধবার রাতে প্রশাসন ও পুলিশ তাঁর বাড়িটি লকডাউন করতে যান। তখন ওই বাসিন্দা বলেন, ‘আমি তো পরীক্ষার জন্য নমুনাই দিই নাই, করোনা পজিটিভ হলাম কীভাবে?’

ওই ব্যক্তির নাম গোলাম রসুল (৬২)। তিনি কুষ্টিয়া পৌরসভার পূর্ব মজমপুরের বাসিন্দা। তিনি কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের প্যাথলজি বিভাগে এমএলএসএস হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ২০১৭ সালে যান অবসরে। ওই ব্যক্তির সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি এই প্রতিবেদককেও একই কথা বলেন।

গোলাম রসুলের ভাষ্যমতে, তাঁর শরীরে ডায়াবেটিস আছে। গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে আটটায় তিনি কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে যান। সেখানে প্যাথলজি বিভাগে ডায়াবেটিস পরীক্ষা করানোর জন্য রক্তের নমুনা দেন। শহরের বিভিন্ন জায়গায় যাতায়াত করেন—এই ভেবে তিনি হাসপাতালের ফ্লু কর্নারে গিয়ে করোনা পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত টিকিট কেটে চিকিৎসকের পরামর্শ নেন। এরপর নাম–ঠিকানা ও মুঠোফোন নম্বর দিয়ে একটি ব্যবস্থাপত্র নেন। সকাল সোয়া নয়টার দিকে তিনি জানতে পারেন, নমুনা নেওয়া হবে বেলা ১১টায়। যেহেতু বাসা হাসপাতালের সামনে, তাই তিনি সোয়া নয়টার দিকে বাড়িতে চলে যান। পরে আর নমুনা দিতে আসেননি।

গোলাম রসুল বলেন, বুধবার রাত সাড়ে আটটার দিকে প্রশাসন ও পুলিশ তাঁর বাড়ি লকডাউন করতে আসে। তারা জানায়, বুধবার কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় যাঁরা ‘পজিটিভ’ হয়েছেন, তাঁদের তালিকায় গোলাম রসুলের নাম ও ঠিকানা রয়েছে।

গোলাম রসুল বলেন, তাঁর শরীরে কোনো জ্বর, ঠান্ডা, কাশি কিছুই নেই। বাজারঘাটে যান বলে করোনা হতে পারে শঙ্কায় নমুনা দেওয়ার জন্য ফ্লু কর্নারে গিয়েছিলেন। বুধবার রাত থেকে তিনি প্রশাসন, চিকিৎসক, পুলিশ, গোয়েন্দা শাখার কর্মকর্তাসহ অসংখ্য মানুষের ফোন পেয়েছেন।

জানতে চাইলে বৃহস্পতিবার দুপুরে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক নূরুন্নাহার বেগম বলেন, ‘বিষয়টি জেনেছি। ধারণা করা হচ্ছে, এই ব্যক্তির (গোলাম রসুল) নমুনা সংগ্রহের জন্য নাম ঘোষণা করা হলে তাঁর স্থলে অন্য কেউ চেয়ারে বসে নমুনা দিয়েছেন। গোলাম রসুলের স্থলে যিনি নমুনা দিয়েছেন, তাঁকে খোঁজা হচ্ছে। কারণ তিনি তো করোনা পজিটিভ। তাঁর মাধ্যমে অনেকে এখন সংক্রমিত হতে পারে।’

লাইট নিউজ

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Lightnewsbd

Developer Design Host BD