সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:২৮ অপরাহ্ন

শ্বশুর বাড়িতে প্রথমবার ঈদ-জন্মদিন সাবিলা নূরের

লাইটনিউজ রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৭ মে, ২০২০

 

বাংলাদেশের জনপ্রিয় মডেল ও অভিনয়শিল্পী সাবিলা নূর। এই প্রজন্মের দর্শকের কাছে দারুণ জনপ্রিয় তিনি। নজরকাড়া অভিনয় দিয়ে লক্ষ দর্শকের মনে জায়গা নেয়া সাবিলা নূরের জন্মদিন আজ ২৭ মে, বুধবার। এই বছর বিশেষ জন্মদিন কাটাচ্ছেন এই অভিনেত্রী।

গত বছর ২৫ অক্টোবর ভালোবাসার মানুষ নেহাল সুনন্দ তাহেরের বিয়ে হয় তার। এবারের জন্মদিনটা কাটছে তার সঙ্গেই। সাবিলা নূর জানালেন ঈদুল ফিতরও শ্বশুরবাড়িতেই কাটিয়েছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে সাবিলা নূর বলেন, ‘বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতে এটা আমার প্রথম ঈদ ও প্রথম জন্মদিন। খুব ভালো ঈদ কাটিয়েছি। আজকে জন্মদিন কাটাচ্ছি। অনেক ভালো লাগছে। তবে কারোনার কারণে খুব একটা আনন্দ করা হয়নি ঈদে। সামনে তো আরো ঈদ আছে। কোরবানি আছে। ইনশাল্লাহ আগামীর ঈদগুলো আরও ভালো করে সেলিব্রেট করতে পারব। করোনার কারণে তো কোথাও বেড়াতে যেতে পারেনি।’

শ্বশুরবাড়ির ঈদ নিয়ে এই অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘আমি অনেকটা লাকি কারণ বাবার বাড়ি ও শ্বশুরবাড়ি আমি আলাদা ভাবে ফিল করিনি। মনে হচ্ছে নিজের বাড়িতে ঈদ করছি। আরেকটা ভালো দিক হচ্ছে ঈদের সালামি অনেক বেশি পেয়েছি এবার।’

জন্মদিনের উপহার হিসেবে কী পেয়েছেন এবার? সাবিলা বললেন, ‘জন্মদিনের সারপ্রাইজ দেওয়ার পরিকল্পনা করছে আবার বর। সারপ্রাইজটা যে কি? সেটা জানি না। তবে বাসাতেই থাকবো। বাসা থেকে বাইরে কোথাও যাব না।’

আগের জন্মদিনের কোনো মজার স্মৃতি মনে পড়ে? স্মৃতি হাতড়ে সাবিলা নূর বললেন, ‘আমি আসলে জন্মদিনটাকে খুব স্পেশালভাবে দেখতাম ছোটবেলা থেকেই। আব্বু আম্মু সবাই আমাকে নিয়ে সেলিব্রেট করত দিনটা। আমিও খুবই উপভোগ করতাম। জন্মদিনের পার্টি হত। জন্মদিনে আম্মু একবার বার-বি-কিউ কেক বানিয়ে দিয়েছিল। আব্বু আম্মু ভাই বোন সবাই মিলে অনেক মজা করতাম এই দিনে।

গতবার নেহাল আমার জন্মদিনে দারুন একটা সারপ্রাইজ দিয়েছিল। প্রত্যেকবারই আমার জন্মদিনটা অনেক ভালো যায়। সে দিক থেকে আমি অনেক লাকি।’

এখন পর্যন্ত জন্মদিনে পাওয়া সেরা গিফট কি? সাবিলা নূর বললেন, ‘এখন পর্যন্ত আমার জন্মদিনের সেরা গিফট হচ্ছে- গত বছর জন্মদিনে আমার স্কুল ফ্রেন্ডদের সঙ্গে দেখা হওয়া। সবাইকে নেহাল একত্রে করে একটা পার্টি আরেঞ্জ করেছিল। এছাড়া যেইবার জন্মদিনের সময় আমেরিকায় ছিলাম, মনে হচ্ছিলো- চেনা পরিচিত মানুষ কম আছে এখানে। এবার হয়তো বড় পরিসরে জন্মদিনের আয়োজন করা হবে না। সেইবার আমার বোন তার বন্ধু-বান্ধবকে ডেকে বড় একটা জন্মদিনের আয়োজন করেছিল। প্রত্যেক জন্মদিনে এমন স্মরণীয় কিছু না কিছু আছে।’

সাবিলা নূর জানালেন, এবার ঈদে ‘ব্যাচেলার কোয়ারেন্টাইন’ নামে তার অভিনীত একটি নাটক প্রচার হয়েছে। বাসায় বসে শুটিং করেছিলেন নাটকটির। এছাড়া পুরনো কিছু নাটক প্রচার হয়েছে তার। লকডাউন শুরু হওয়ার আগে পরীক্ষা নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। এরপর শুরু হলো লকডাউন।

সাবিলা বলেন, ‘ করোনার কারনে কি কি নাটক যাচ্ছে খুব একটা খবরও রাখিনি। এখন সুস্থ থাকা ও বেঁচে থাকাটা জরুরী। এই সমস্যা আমরা কবে কাটিয়ে উঠতে পারব জানি না।’

সাবিলা ২০১৪ সালে মডেলিং এর মাধ্যমে অভিনয় জগতে প্রবেশ করেন। তার অভিনীত প্রথম নাটক ‘ইউ টার্ন’। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। একে একে করেছেন মাঙ্কি বিজনেস, কেমেস্ট্রি, টীন টিন, মাস্তি আনলিমিটেড, রোদ বৃষ্টি অথবা অন্নকিছু, বুলেট প্রফ ম্যরেজ, ক্রস কানেকশন, মিসফায়ার, জোনাকির আলো, হেল মেট, লাভ অ্যান্ড কোম্পানি, পলায়ন বিদ্যার মত তুমুল জনপ্রিয় সব নাটক।

শৈশবেই নাচের প্রতি আসক্তি থেকে সাবিলা বুলবুল ললিতাকলা একাডেমি থেকে নাচ শিখে পদ্ম কুড়ি চ্যাম্পিয়ন হন। এরপর আসেন বিজ্ঞাপনচিত্রে। তার জনপ্রিয় বিজ্ঞাপনগুলোর মাঝে রয়েছে গ্রামীণ ফোন, নেস্কেফে, প্রাণ ফিট ইত্যাদি।

 

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Lightnewsbd

Developer Design Host BD