সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন

সৌদি আরবে রোববার থেকে উঠে যাচ্ছে বিধি-নিষেধ

লাইটনিউজ রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২০ জুন, ২০২০

 

করোনাভাইরাসের কারণে সৌদি সরকারের দেয়া বিভিন্ন বিধি-নিষেধ শিথিল হচ্ছে আগামীকাল রোববার। ভাইরাসের সংক্রমণ কমতে থাকায় এবং নাগরিকদের জীবন স্বাভাবিক করার অংশ হিসেবে এই পদক্ষেপ নিয়েছে সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এ ছাড়া আগামীকাল থেকেই মক্কায় খুলে দেওয়া হচ্ছে দেড় হাজারের বেশি মসজিদ।

আল-আরাবিয়া নিউজের বরাতে জানা যায়, মক্কা শহর ব্যতীত সৌদি আরবের সব শহর ও প্রদেশে ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দেয়া বিভিন্ন বিধি-নিষেধ শিথিল করা হবে। আগামীকাল শনিবার (২১ জুন) থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

ভাইরাসটির সংক্রমণ কমতে থাকায় গত ২৬ মে সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, চতুর্থ পর্যায়ের স্বাস্থ্য সতর্কতা থেকে নেমে তৃতীয় পর্যায়ের স্বাস্থ্য সতর্কতা আরোপ করা হবে।

তবে সেই বিবৃতিতে বলা হয়নি কবে থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হচ্ছে। গত সপ্তাহে এক ঘোষণায় বলা হয়, জুনের ২১ তারিখ কিছু এলাকা বাদে সৌদি আরবের অধিকাংশ এলাকায় তৃতীয় পর্যায়ের স্বাস্থ্য সতর্কতা জারি করা হবে।

জানা যায়, সৌদি আরবের বন্দর নগরী জেদ্দায় এতদিন বিকেল ৩টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত ১৫ ঘণ্টা লকডাউন আইন কার্যকর ছিল। যার মেয়াদ আজ শনিবার শেষ হচ্ছে। আগামীকাল থেকে সেখানকার মানুষ স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু করতে পারবে বলে জানিয়েছে সরকার।

জেদ্দার মতো অন্যান্য স্থানেও আগামীকাল থেকে কাজে ফেরার সুযোগ পাচ্ছেন সৌদি নাগরিকরা। তবে জনজীবন স্বাভাবিক করার এই প্রচেষ্টাতেও সাধারণ মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশনা দেয়া হয়ছে। সেইসঙ্গে কিছু নিয়ম জারি করেছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

শুক্রবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, সবাইকে অবশ্যই সামাজিক দূরত্ব মেনে চলাচল করতে হবে। এক স্থানে সর্বোচ্চ ৫ জনের বেশি জড়ো হতে পারবে না।

আল-আরাবিয়া বলছে, লকডাউন শিথিল করা হলেও চালু হচ্ছে না আন্তর্জাতিক বিমানসেবা। সৌদি বেসামরিক বিমান কর্তৃপক্ষ জানায়, সরকার হতে পরবর্তী নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত সকল আনর্জাতিক বিমানসেবা বন্ধ থাকবে।

সৌদি সরকারের দেয়া বিভিন্ন বিধি-নিষেধ শিথিল প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ আল-আবদ আল-আলি বলেন, বিধি-নিষেধ তুলে নেয়া মানেই করোনাভাইরাস এখান থেকে চলে যায়নি। ভাইরাসটি এখনো সংক্রমণ ঘটিয়ে চলছে। মহামারিও আছে। এখনো আমাদের কাছে কোনো ভ্যাকসিন নেই।

তিনি বলেন, এত প্রতিবন্ধকতা থাকার পরও আমরা এমন একটি পর্যায়ে এসেছি যে, জনজীবন স্বাভাবিক করার একটি সুযোগ তৈরি হয়েছে। তবে আমাদের খুব সতর্কতার সঙ্গে সেদিক এগুতে হবে।

এদিকে, আগামীকাল রোববার থেকেই পবিত্র নগরী মক্কায় দেড় হাজারের বেশি মসজিদ খুলে দেওয়া হচ্ছে। এ সংক্রান্ত ঘোষণা গতকাল শুক্রবার দেওয়া হয়েছে। তবে সেখানে বলা হয়, মসজিদ খুলে ‍দিলেও স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবেই মেনেই নামাজ আদায় করতে হবে।

 

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Lightnewsbd

Developer Design Host BD