বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

সেবা খাতের ঋণ সীমা বাড়ল

করোনার প্রাদুর্ভাবে দেশের ক্ষতিগ্রস্ত কুটির, মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (সিএমএসএমই) খাতের উদ্যোক্তাদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় ২০ হাজার কোটি টাকার বিশেষ ঋণ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এই প্যাকেজের আওতায় উৎপাদনমুখী ও সেবাখাতে ঋণ বিতরণ গতিশীল করতে ঋণের সীমা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এই দুই খাতের উদ্যোক্তারা বিদ্যমান মোট ঋণের ৮০ শতাংশ পর্যন্ত প্রণোদনা ঋণ পাবেন। আগের উৎপাদনমুখী ও সেবাখাতে ঋণসীমা ছিল ৫০ ও ৩০ শতাংশ।

সোমবার (৩১ আগস্ট) বাংলাদেশ ব্যাংকের এসএমই অ্যান্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস ডিপার্টমেন্ট থেকে এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করেছে।

এতে বলা হয়েছে, এ প্যাকেজের আওতায় ঋণ বিতরণ অধিকতর গতিশীল করার লক্ষ্যে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর অনুকূলে চলতি মূলধন বাবদ ঋণ সুবিধা প্রদানের জন্য কিছু নীতিতে সংশোধনী আনা হয়েছে। আগে উৎপাদনমুখী শিল্পের উদ্যোক্তাদের তাদের বার্ষিক মোট ঋণের ৫০ শতাংশ ঋণ এবং সেবাখাতে উদ্যোক্তাদের তাদের মোট ঋণের ৩০ শতাংশ প্যাকেজ থেকে ঋণ নিতে পারতেন।

এখন উভয়খাতের উদ্যোক্তারা বিদ্যমান মোট ঋণের ৮০ শতাংশ প্রণোদনা ঋণ নিতে পারবেন। অর্থাৎ সীমা বাড়ানোর ফলে এই দুই খাতের উদ্যোক্তারা ১০০ টাকা ঋণ নিয়ে থাকলে তারা প্রণোদনা প্যাকেজ থেকে আরও ৮০ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন। তবে প্রণোদনা হিসেবে প্রাপ্ত মোট ঋণ উদ্যোক্তার চলতি মূলধনের ৫০ শতাংশের বেশি হবে না। চলতি মূলধনের পরিমাণ বা সীমা গত বছরের ৩১ ডিসেম্বরের ভিত্তিতে নির্ধারিত হবে।

লাইটনিউজ/এসআই