বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

পেঁয়াজের দাম বাড়ছে কেন, এখনই অভিযান চান ভোক্তারা

বাজারে পেঁয়াজের ঝাঁজ বাড়ছে। এক সপ্তাহের ব্যবধানে সব ধরনের পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ৫ টাকা। দাম বাড়ার পেছনে বিক্রেতারা নানা কথা বলছেন। সরবরাহের ঘাটতি, মজুদ, সিন্ডিকেট, মৌসুমের শেষ এমন অনেক কারণই উঠে এসেছে পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতাদের কথায়। তবে দাম মধ্যবিত্তের নাগালের মধ্যে আনতে হলে অভিযান এবং মনিটরিং দুটিরই প্রয়োজন বলে মত দেন ক্রেতারা।

পেঁয়াজের মৌসুম যখন শুরু হয়েছিল তখন দেশি পেঁয়াজের দাম ছিল ৩০ থেকে ৩৫ টাকা কেজি। আর ভারতীয় পেঁয়াজ ২০ থেকে ২৫ টাকা। মৌসুমের চার মাসের মত পার হয়েছে। এখনই দেশি পেঁয়াজের দাম ঠেকেছে ৫০ টাকায়, আর ভারতীয় পেঁয়াজের দাম ৪০ টাকায়।

এক সপ্তাহ আগে কেজিতে আরও পাঁচ টাকা কম ছিল। এক মাস আগে ছিল ১০ টাকা কম। প্রতিদিনই ২৫ পয়সা, ৫০ পয়সা কিংবা এক টাকা করে কেজি প্রতি বাড়ছে। এই বাড়ন্ত অবস্থা আরও কিছুদিন চলতে পারে বলে ধারণা করছেন পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা। তারপর আবার কমার কথা বলেছেন তারা।

দাম কেন বাড়ছে এই প্রশ্ন ছিল খুচরা ও পাইকারি বিক্রেতাদের কাছে। অধিকাংশই বিক্রেতারা বলেন, বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ কম হওয়াই এখন পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি। এছাড়া অনেক মোকামেই পেঁয়াজ মজুদ করে রাখা হচ্ছে। তারা সিন্ডিকেট করে দাম বাড়াচ্ছে। এদিকে পেঁয়াজের মৌসুম শেষ হচ্ছে এটাও একটা কারণ।

ব্যবসায়ীরা আরও বলছেন, করোনাকালের শুরুতে পেঁয়াজের জন্য যে হাহাকার শুরু হয়েছিল এবার তেমনটা হবে না। তারপরও, দাম ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে রাখতে বাজারে ভোক্তা অধিদপ্তর ও র‌্যাবের একের পর এক অভিযান চালানও ছাড়া বিকল্প পথ নেই।

লাইটনিউজ