বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

চলতি মাসে স্বল্পমেয়াদি বন্যার আশঙ্কা

চলতি বছর ইতোমধ্যে তিন দফায় বন্যায় প্লাবিত হয়েছে দেশের ৩৩ জেলা। যার ধকল এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেননি ভুক্তভোগীরা। এরমধ্যেই চলতি মাসে আরেকটি স্বল্পমেয়াদি বন্যার আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সেপ্টেম্বরে বৃষ্টিপাত স্বাভাবিক থাকতে পারে। তবে বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দু’টি লঘুচাপ দেখা দিতে পারে, যার মধ্যে একটি রূপ নিতে পারে বর্ষাকালীন নিম্নচাপে। আর মৌসুমি বৃষ্টিপাতজনিত কারণে দেশের উত্তর ও পূর্বাঞ্চলের প্রধান প্রধান নদ-নদীর পানির উচ্চতা বাড়তে পারে। এক্ষেত্রে বন্যার আশঙ্কা রয়েছে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের কতিপয় স্থানে।

আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ জানান, চলতি মাসে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হতে পারে রংপুর বিভাগে, সর্বোচ্চ ৪৬০ মিলিমিটার পর্যন্ত বর্ষণ হতে পারে। আর সবচেয়ে কম বর্ষণ হতে পারে খুলনা বিভাগে, সর্বোচ্চ ৩০৫ মিলিমিটার। রাজধানীতেও সর্বোচ্চ ৩০৫ মিলিমিটার বর্ষণ হতে পারে। সবেচেয়ে বেশিদিন বৃষ্টির আভাস রয়েছে সিলেট বিভাগে, ২৩ দিন।

আগস্টে দেশের চট্টগ্রাম, খুলনা ও বরিশাল বিভাগে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে। আর স্বাভাবিকের চেয়ে কম বৃষ্টিপাত হয়েছে ঢাকা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, রংপুর ও সিলেট বিভাগে। সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগে, ৬৫৭ দশমিক ৪ মিলিমিটার। আর সবচেয়ে কম বৃষ্টিপাত হয়েছে রাজশাহী বিভাগে, ১৫৩ দমমিক ৬ মিলিমিটার। সবচেয়ে বেশিদিন বৃষ্টিপাত হয়েছে সিলেট বিভাগে, ২৬ দিন এবং কম দিন বর্ষণ হয়েছে রাজশাহীতে, ১৮ দিন।

চলতি বছর জুনের শেষের দিকে প্রথম স্বপ্লমেয়াদি বন্যার দেখা দেয়। এরপর জুলাইয়ের শুরু এবং শেষের দিকে আরো দু’দফা বন্যায় দেশের ৩৩ জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়। এতে প্রায় ৫৫ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। নিহত হয় শতাধিক মানুষ। আর বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ২০ হাজার ব্যক্তি।

লাইটনিউজ/এসআই