বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

‘বার্সেলোনাকে ভালোবাসি তাই আদালতে নিতে চাইনি’

স্পোর্টস ডেস্ক : বার্সেলোনার সঙ্গে দীর্ঘ দুই দশকের সম্পর্ক বিচ্ছেদ করে লিওনেল মেসি গ্রহণ করতে চেয়েছিলেন নতুন চ্যালেঞ্জ। শেষ পর্যন্ত স্প্যানিশ ক্লাবটিতেই থাকার সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে আর্জেন্টাইন মহাতারকাকে। এর পেছনে অবশ্য বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে প্রিয় দলকে তিনি আদালতে নিতে চাননি।

দেড় সপ্তাহ আগে যখন কাতালান দলটির ইতিহাসে সবচেয়ে বড় তারকার বিদায়ের বিষয়টি সামনে আসে, তখন থেকে শুরু হয় নানা গুঞ্জন। কেউ বলছিলেন, মেসির গন্তব্য ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ। অনেকেই জানিয়েছে, ইতালিয়ান কিংবা ফ্রেঞ্চ লিগেও দেখা যেতে পারে তাকে। সব কিছু থামিয়ে শুক্রবার রাতে এক সাক্ষাতকারের মাধ্যমে সব কিছু স্পষ্ট করেছেন ৩৩ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড।
ন্যু ক্যাম্পে যখন ফিরবেন না এমন সিদ্ধান্ত জানানোর পর তখন লা লিগা কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছিল মেসিকে নিতে হলে, রিলিজ ক্লজের ৭০০ মিলিয়ন ইউরো দিতেই হবে। মেসির বাবা ও এজেন্ট জর্জ মেসি এই ক্লজকে ‘অকার্যকর’ বলেও দাবি করেছিলেন।
স্প্যানিশ গণমাধ্যমগুলোও জানিয়েছিল, বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ালে শেষ পর্যন্ত মেসিরই জয় হবে। তবে লিও জানিয়ে দেন প্রিয় ক্লাবকে আদালতে নেয়ার মতো কোনও ইচ্ছাই ছিল না তার।

মেসি বলেন, ‘আমি কোনও আইনি লড়াই শুরু করতে চাইনি। আমি বার্সেলোনাকে আদালতে নিতে চাইনি। কারণ আমি ক্লাবকে ভালোবাসি। সেই কারণেই আর এক বছর থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

লাইটনিউজ