মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন

অবশেষে মারা গেলেন স্বামীর দেয়া আগুনে দগ্ধ গৃহবধূ

লাইটনিউজ রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১ জুলাই, ২০২০

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় যৌতুক লোভী স্বামীর দেয়া আগুনে দগ্ধ হওয়া সেই গৃহবধূ রহিমা বেগম (৩০) মারা গেছেন মঙ্গলবার গোপালগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই গৃহবধূ মারা গেছেন বলে তার ভাই নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের ভাই হাসান শেখ জানান, গত ৬ বছর আগে মঠবাড়িয়া উপজেলার ঘোষের টিকিকাটা গ্রামের মৃত শামসুল আলমের ছেলে ইমাম হোসেনের সঙ্গে তার বোন রহিমার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তার বোনকে যৌতুকের জন্য মারধর করত ইমাম হোসেন। গত ১১ জুন রাতে আবারো যৌতুকের টাকার জন্য চাপ দেয়। এ সময় রহিমা টাকা আনতে অপারগতা প্রকাশ করায় ইমাম তার বোনের পড়নে থাকা শাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়।

এ সময়ে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে ওই রাতেই তাকে চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। আরও উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে গোপালগঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার সকালে তার মৃত্যু হয়।

রহিমার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়ার ঘটনার পরের দিন গত ১২ জুন তার ভাই হাসান শেখ বাদী হয়ে ইমাম হোসেনকে প্রধান আসামি করে ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন।

উল্লেখ্য, ইমাম হোসেন পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার আলমগীর হেসেনের মেয়ে রহিমা বেগমকে দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে বিয়ে করে ছিল।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মো. মাসুদুজ্জামান জানান, আগেই ইমাম হোসেনকে বরিশাল থেকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

লাইট নিউজ

আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Lightnewsbd

Developer Design Host BD