বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

লকডাউন প্রত্যাহার উহান শহরে

চীনের মধ্যাঞ্চলীয় হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান। গত বছর ডিসেম্বরের শেষ দিকে এই শহরেই প্রথম প্রাদুর্ভাব দেখা দেয় প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯)। এরপর ধীরে ধীরে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে এটি। সংক্রমণ থেকে বাঁচতে দেশে দেশে যখন লকডাউন জারি করা হচ্ছে, তখন করোনার উৎপত্তিস্থল এই উহান থেকে তা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দিবাগত মধ্যরাত থেকে উহানের ওপর জারি থাকা সকল বিধি-নিষেধ প্রত্যাহার করে নেয় দেশটির সরকার। এর আগে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে চলতি বছরের ২৩ জানুয়ারি পুরো শহরটি লকডাউন কর দেওয়া হয়।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, উহান শহর আজ থেকে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। চালু করা হয়েছে গণপরিবহন। হেলথ অ্যাপে সবুজ সংকেত পাওয়া সুস্থ বাসিন্দা ও পর্যটকরা এখন শহরটিতে নির্বিঘ্নে চলাফেরা করতে পারবে। চাইলে শহর ছেড়ে অন্য কোনো স্থানেও যেতে পারবে।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে উহানের সঙ্গে সকল ধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় চীন। শহরটিতে বন্ধ করে দেওয়া হয় যান চলাচল। প্রায় ১১ সপ্তাহ ধরে চলা লকডাউনে শহরটিতে অবরুদ্ধ থাকেন ১ কোটি ১০ লাখেরও বেশি বাসিন্দা। এ সময় পুরো শহর পরিণত হয় এক ভূতুড়ে নগরীতে।

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে চীনে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৮১ হাজার ৮০২ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৩ হাজার ৩৩৩ জন। চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭৭ হাজার ২৭৯ জন। ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে দেশটির মধ্যে সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছে এই উহান শহরেই।