বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

লকডাউনে কতটুকু শরীরচর্চা প্রয়োজন?

একটানা এতদিন ঘরে কে-ইবা থেকেছে এর আগে! এমন একটা পরিস্থিতিতে কী করতে হবে আর কী করতে হবে না, তাও বুঝতে পারছেন না অনেকে। তাইতো দিনের বেশিরভাগ সময়ই কাটছে শুয়ে-বসে, গড়াগড়ি খেয়ে। ফ্ল্যাট নামক পাখির বাসায় হাঁটাহাঁটির জায়গাই বা কোথায়! তাইতো টিভির সামনে বসে বা বিছানায় শুয়ে মোবাইল ফোনেই কাটছে সময়। কেউ কেউ হয়তো বই পড়ছেন এই হঠাৎ পাওয়া অবসরে। তবে তাও তো সেই বিছানায় বসেই।

এই দীর্ঘ সময় শুয়ে-বসে কাটালে লকডাউন শেষ হওয়ার পর আয়নায় নিজেকেই চিনতে পারবেন না। তাই শুধু শুয়ে-বসে না কাটিয়ে কিছুটা ঘাম ঝরানো জরুরি। তাই জেনে নিন ঘরবন্দি অবস্থায় ফিট থাকতে কতটা শরীরচর্চা করতে হবে-

ফিট থাকতে হলে সপ্তাহে অন্তত ২-৩ ঘণ্টা শরীরচর্চা করতেই হবে। প্রতি সপ্তাহে আড়াই ঘণ্টা মাঝারি ধরনের ব্যায়াম এবং দেড় ঘণ্টা ভারী বা ইনটেনসিভ এক্সারসাইজ করতে হবে।

মাসলের জোর বাড়ে এমন ব্যায়াম সপ্তাহে অন্তত দু-দিন করা জরুরি। এছাড়া বাকি সময়টাও শুয়ে-বসে না থেকে ঘরের কাজ করুন। তাতেও অনেক ক্যালরি বার্ন হবে।

ঘরেই মিউজিক চালিয়ে ডান্স করতে পারেন। কাছাকাছি পার্ক থাকলে সেখানে একটু জগিং-ও করে আসা যায়। তবে অন্য জগারদের থেকে নিরাপদ দূরত্ব অবশ্যই বজায় রাখুন।

ঘরের মধ্যেই দিনে ১০ মিনিট সিঁড়ি বেয়ে দৌড়ে ওঠা-নামা করুন। বাড়ির ছাদে বেশ কিছুটা সময় হাঁটাহাটি করতে পারেন। বাড়ির সামনে জায়গা থাকলে একটু সাইকেলও চালানো যেতে পারে। কিন্তু সাইকেল চালাতে বাইরে বেরিয়ে যাবেন না।