বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

করোনার ৪৩ দিনে দেশে মোট ১২৮ চিকিৎসক আক্রান্ত

লাইট নিউজ প্রতিবেদক : রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের পাঁচ চিকিৎসকসহ দেশে এখন পর্যন্ত ১২৮ চিকিৎসক করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) আছেন একজন। একজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনজন চিকিৎসক সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৫৩ জন। বাকিরা বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

রোববার (১৯ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ডক্টরস ফাউন্ডেশনের (বিডিএফ) প্রধান সমন্বয়ক ডা. নিরূপম দাশ এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ঢাকা বিভাগে, সেখানে ৬০ জনের অধিক চিকিৎসক। ঢাকার মধ্যে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজে ১২ জন, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে আটজন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঁচজন, কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতালে একজন চিকিৎসক আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া নারায়ণগঞ্জে ১২ জন, ময়মনসিংহে সাতজন, গাজীপুরের কালিগঞ্জে ছয়জন আক্রান্ত হয়েছেন। বাকিরা দেশের অন্যান্য জেলায় আক্রান্ত। আক্রান্তদের সংস্পর্শ আসা প্রায় ৩০০ স্বাস্থ্যকর্মী কোয়ারেন্টিন আছেন।

নিরূপম দাশ বলেন, যে হারে চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। এটা খুবই উদ্বেগের বিষয়। এতে স্বাস্থ্যখাত ভেঙে পড়ার শঙ্কা রয়েছে।

এদিকে, সোসাইটি ফর নার্সেস সেফটি অ্যান্ড রাইটস সংগঠনের মহাসচিব সাব্বির মাহমুদ তিহান বলেন, দেশের ১৫ টি সরকারি হাসপাতাল ও ১০ টি বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে ৭১ জন নার্স করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের সংস্পর্শে গিয়েছিলেন এমন ৩০০ নার্স বর্তমানে কোয়ারান্টিনে আছেন।

নার্সদের আক্রান্ত হওয়ার মূল কারণ হলো পর্যাপ্ত সুরক্ষা ব্যবস্থার ঘাটতি ও অনেক রোগী তথ্য গোপন করে সেবা নিতে আসা বলেও জানান সাব্বির মাহমুদ তিহান।

লাইটনিউজ ডেস্ক