বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

মিটফোর্ডের ২৩ চিকিৎসকসহ আক্রান্ত ৪২

লাইট নিউজ প্রতিবেদক : ঢাকার স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ (মিটফোর্ড) হাসপাতালের ২৩ জন চিকিৎসকসহ ৪২ জন স্বাস্থ্যকর্মী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। করোনাভাইরাস আক্রান্তের তথ্য গোপন করে চিকিৎসা নেওয়া একজন রোগীর থেকে চিকিৎসক-নার্সদের মধ্যে এই সংক্রমণ ঘটছে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের ধারণা।

হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাজী মো. রশিদ উন নবী রোববার রাতে ৪২ জন স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত হওয়ার তথ্য জানান।

তিনি বলেন, গত বৃহস্পতিবার ১২ জন এবং শুক্রবার ১০ জনের করোনাভাইরাস ধরা পড়েছিল। তাদের মধ্যে সার্জারি ও গাইনি বিভাগের ১০ জন চিকিৎসক এবং আটজন নার্স ছিলেন। পরদিন ৬৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করালে তাদের সবার ফল ‘নেগেটিভ’ আসে। আজকে আরও ১৩ জন চিকিৎসক এবং সাতজন নার্সের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।এ নিয়ে মোট ৪২ জন আক্রান্ত হয়েছে, যার মধ্যে ২৩ জনই চিকিৎসক এবং একজন আনসার।

গত সপ্তাহের শনিবার হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে একজন রোগী ভর্তি হন। জরুরি ওই রোগীর অস্ত্রোপচারে যারা যুক্ত ছিলেন, তারা সবাই আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানান পরিচালক।

ব্রিগেডিয়ার রশীদ বলেন, মূলত ওই রোগীর মিথ্যা তথ্যের কারণেই ডাক্তাররা বেশি আক্রান্ত হয়েছেন। এখন সেটা একজনের কাছ থেকে অন্যজনে ছড়াচ্ছে। আর আমরাই বা কী করব, একজন রোগীর ইমার্জেন্সি অপারেশনের দরকার হলে তো অপারেশন করতে হবে, না হলে রাস্তায় মারা যাবে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে হাসপাতালের একজন চিকিৎসক বলেন, গতকাল ৬৯ জনের কোভিড-১৯ নেগেটিভ রেজাল্ট আসায় আমাদের মধ্যে স্বস্তি ছিল। তবে এখন আতঙ্ক আরও বেড়ে গেছে।

কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত চিকিৎসকদের সংখ্যা বাড়তে থাকায় কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন কি না জানতে চাইলে হাসপাতালের পরিচালক বলেন, যারা আক্রান্ত হচ্ছে তাদের আইসোলেশনে পাঠাচ্ছি। আর তাদের সঙ্গে কাজে যুক্ত ছিল এমনদের কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হচ্ছে।

লাইট নিউজ প্রতিবেদক