বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

মৃত বৃদ্ধের দাফনে এলাকাবাসীর বাধা

ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে গত রোববার মারা যান এক বৃদ্ধ (৬০)। ওই বৃদ্ধের লাশ অ্যাম্বুলেন্সে করে পরিবারের লোকেরা চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় তাঁর গ্রামের বাড়িতে নেওয়া এবং দাফন করার ক্ষেত্রে এলাকাবাসীর বাধার সম্মুখীন হন। পরে গতকাল মঙ্গলবার পুলিশ ও প্রশাসনের সহায়তার দাফন সম্পন্ন হয়।

পরিবার, পুলিশ, প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কয়েক দিন আগে জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি হন ওই বৃদ্ধ। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত রোববার সেখানে তিনি মারা যান। গতকাল একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে সেখান থেকে তাঁর লাশ নিয়ে বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেন পরিবারের সদস্যরা। করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়ার খবর ওই গ্রামে চাউর হয়। সন্ধ্যায় গ্রামে ঢোকামাত্রই এলাকাবাসী সড়কের ওপর ব্যারিকেড সৃষ্টি করে লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স থামিয়ে দেন। তাঁরা ওই লাশ এলাকায় দাফন করতে না দেওয়ার ঘোষণা দেন।

মতলব দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার আইচ বলেন, খবর পাওয়ার পর তাঁর থানা-পুলিশের কয়েকজন সদস্য ও উপজেলা প্রশাসনের লোকজন ঘটনাস্থলে যান। এলাকাবাসীকে বুঝিয়ে সড়কের ব্যারিকেড সরিয়ে দেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফাহমিদা হক বলেন, গতকাল রাত আটটায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা মেনে সীমিত সংখ্যক লোকের উপস্থিতিতে পারিবারিক কবরস্থানে ওই বৃদ্ধের লাশ দাফন করা হয়। লাশ এলাকায় ঢুকতে না দেওয়া এবং দাফনে বাধা দেওয়ার বিষয়টি অমানবিক বলে মন্তব্য করেন তিনি।