বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

তারাবিতে অংশ নেওয়া যাবে ১২ জন

 

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সব ধরনের গণজমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এমনকি জুমার নামাজ ও পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ মসজিদে গিয়ে আদায় করার ক্ষেত্রে এক প্রকারের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তারই অংশ হিসেবে আসন্ন রমজান মাসে মসজিদে তারাবির নামাজ হলেও সেখানে ১২ জনের বেশি অংশ নেওয়া যাবে না বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর থেকেই প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। আজ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দেশে মোট ৪ হাজার ১৮৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১২৭ জন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন, আমরা সংক্রমণের সর্বোচ্চ পর্যায়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। আগামী কিছু দিন আরো কঠিন সময় পার করতে হবে।

দেশের এই যখন অবস্থা তখন দেশে আগামী শনিবার থেকে রোজা শুরু হতে পারে। শনিবার রোজা শুরু হলে শুক্রবার রাতেই তারাবির নামাজ শুরু হবে। তাই মরণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে দেশবাসীকে রক্ষায় তারাবির নামাজে বিধি-নিষেধ আরোপে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, মসজিদে তারাবির নামাজে ১২ জন উপস্থিত থাকতে পারবেন। এর মধ্যে দুই জন কোরানের হাফেজ। বাকিদের মধ্যে মসজিদের স্টাফ ও মুসল্লি থাকবেন।

এমনকি সৌদি আরবেও তারাবির নামাজের ক্ষেত্রে কড়াকড়ি করা হয়েছে। দেশটিতে প্রথমে নিষিদ্ধই করা হয়েছিল তারাবির নামাজ। পরে সে অবস্থান থেকে সরে এসে সীমিত পরিসরে করার অনুমতি দিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।