বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

করোনা পরিস্থিতির মাঝেই আফ্রিকায় ম্যালেরিয়ায় দ্বিগুণ মৃত্যুর আশঙ্কা

 

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে ম্যালেরিয়া মোকাবিলা প্রচেষ্টা ব্যাহত হওয়ায় চলতি বছর আফ্রিকার সাব-সাহারা অঞ্চলে দ্বিগুণ মানুষ মারা যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। মৃতের সংখ্যা দাঁড়াতে পারে প্রায় ৭ লাখ ৬৯ হাজার।

বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এমন সতর্কবার্তা দিয়েছে।

অঞ্চলটিতে প্রায় ২৫ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং ইতোমধ্যে মারা গেছে ১ হাজার ২০০ জনেরও বেশি মানুষ।এ কারণে আফ্রিকার সাব-সাহারা অঞ্চলে অবস্থিত দেশগুলোর সরকার এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পুরো নজর রয়েছে করোনা পরিস্থিতির সামাল দেওয়ার ওপর।যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আফ্রিকার আঞ্চলিক পরিচালক ড. মাতশিদিসো মোয়েতি সব দেশকে ম্যালেরিয়া প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেছেন।

এক বিজ্ঞপ্তিতে মোয়েতি বলেন, সাম্প্রতিক এক গবেষণায় পাওয়া গেছে, যদি মশারি বিতরণ বন্ধ হয়ে যায় এবং চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হয় তবে সাব-সাহারান আফ্রিকায় ২০১৮ সালের তুলনায় এ বছর দ্বিগুণ লোক ম্যালেরিয়ায় মারা যেতে পারে।

তিনি জানান, ২০০০ সালের পর থেকে এটিই হবে ম্যালেরিয়ায় সর্বোচ্চ মৃত্যু।

২০১৮ সালে আফ্রিকা অঞ্চলে ২১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয় এবং প্রায় ৩ লাখ ৬০ হাজার মানুষ মারা যায়। যা বিশ্বের মোট ম্যালেরিয়া আক্রান্তের ৯০ শতাংশ।

ডব্লিউএইচও জানিয়েছে, যদি করোনাভাইরাসের বিস্তার কমানোর চেষ্টার কারণে ম্যালেরিয়ার ওষুধ সরবরাহ তিন চতুর্থাংশ কমে যায় তাহলে পায় ৭ লাখ ৬৯ হাজার মানুষ মারা যেতে পারে।

করোনা মহামারির মধ্যে বেনিন, কঙ্গো, সিয়েরা লিওন এবং চাঁদ ম্যালেরিয়া প্রতিরোধ কর্মসূচি চালু করেছে। ডব্লিউএইচও-এর মতে এটি এই উপমহাদেশের অন্য দেশের জন্য অনুকরণীয় হতে পারে।