বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

করোনা : ভেন্টিলেটর মেশিন কোনো ভূমিকা রাখতে পারছে না

 

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে মারাত্মকভাবে আক্রান্ত রোগীদের ভেন্টিলেটর মেশিনের সাহায্যে ফুসফুসে অক্সিজেন সরবরাহ করা হলেও এতে তারা রক্ষা পাচ্ছেন না। এমনটিই দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকরা। তারা বলছেন, নিউইয়র্কে এই মেশিন দিয়ে কৃত্রিম উপায়ে শ্বাস-প্রশ্বাস দেয়া অধিকাংশ রোগীরই মৃত্যু হচ্ছে।

ভয়ংকর এই ভাইরাসটিতে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটির এক চতুর্থাংশেরও বেশি সংখ্যক সংক্রমিত মানুষ রয়েছে শুধু নিউইয়র্কেই। রাজ্যটিতে দুই লাখ ৬০ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ১৫ হাজারের বেশি।

আমেরিকান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় দেখা গেছে, নিউইয়র্ক নর্থওয়েল হেলথের অধীনে চিকিৎসা নেয়া ২১ শতাংশ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে ৮৮ শতাংশ রোগীকেই ভেন্টিলেটর মেশিন দিয়ে রাখা হয়েছিল। এতেও তাদের শেষ রক্ষা হয়নি।

নিউইয়র্ক নর্থওয়েলে মোট ৬ হাজার রোগীর উপর গবেষণাটি পরিচালিত হয়েছে। সেখানে দেখা যায়, গুরুতর অসুস্থ রোগীদের ক্ষেত্রে ভেন্টিলেটর মেশিন কোনো ভূমিকাই রাখতে পারছে না।

নিউইয়র্ক নর্থওয়েলের চিকিৎসক সাফিয়া রিচার্ডসন বলেন, করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগীদের মধ্যে মোট ১২ শতাংশের ভেন্টিলেটর মেশিনের প্রয়োজন হয়। ভাইরাসটির কারণে যাদের অবস্থা গুরুতর হয়ে যায় তাদের আগে থেকে কোনো একটি শারীরিক সমস্যা লক্ষ্য করা গেছে। এক্ষেত্রে উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যা ও ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীদের বেশি ঝুঁকিতে পড়তে দেখা গেছে।

গবেষণায় বলা হয়, মৃতদের মধ্যে নারীদের থেকে পুরুষের সংখ্যা বেশি লক্ষ করা গেছে। ১৮ বছরের নিচে কারো এই গবেষণা চলার সময় মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি। আক্রান্তদের মোট এক-তৃতীয়াংশ রোগীর মধ্যে জ্বর পাওয়া গেছে। ১৭ শতাংশের নিঃশ্বাস ঘন হয়ে আসছিল। ৩০ শতাংশের অক্সিজেনের প্রয়োজন হয়েছিল।