বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

অসহায় মানুষের পাশে তারকারা

 

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে অনেকের আয় রোজগারে লেগেছে ভাটার টানা। একদিকে সিয়াম সাধনার মাস, অন্যদিকে খাবারের চরম অনিশ্চয়তা। সব মিলিয়ে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়েছেন স্বল্পআয়ের মানুষ। এসব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন অনেক তারকাই। সেই তালিকায় এবার যুক্ত হলেন দর্শকপ্রিয় অভিনেতা জাহিদ হাসান। নিজের সাধ্যমতো ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন রাজধানী ঢাকাসহ নিজের গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জের বেশ কিছু অসহায় মানুষের কাছে। এ বিষয় জাহিদ হাসান বলেন, ‘অসহায় মানুষের সহায়তা দিয়ে যাচ্ছি অনেক আগে থেকেই। কিন্তু এটি সবাইকে জানানোর বিষয়ে আগ্রহী নই আমি। কারণ এতে যারা সাহায্য নেন তাদের এক ধরনের অবজ্ঞা করা হয় বলে মনে করি। তাই বিষয়টি আড়ালে থাকাই ভালো।’ এ অভিনেতা আরও বলেন, ‘আমার ব্যক্তিগত এ কার্যক্রম চলমান থাকবে। এ ছাড়া অভিনয় শিল্পী সংঘ ও ডিরেক্টরস গিল্ডের সহায়তা তহবিলেও অর্থ সহায়তা করেছি। আলস্নাহর কাছে প্রার্থনা করছি, এ দুর্যোগ থেকে তিনি যেন আমাদের রক্ষা করেন।’

জানা গেছে, জাহিদ হাসানের অর্থায়নে এই ত্রাণ সহায়তা কার্যক্রমে সহযোগিতা করছেন কিছু স্বেচ্ছাসেবী মানুষ। তবে তার এ কার্যক্রমটির মাধ্যমে যারা সহায়তা পাচ্ছেন তাদের পরিচয় গোপন রাখা হয়েছে।

অভিনেতা জাহিদ হাসানের মতোই অসহায় মানুষের পাশে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী জিনাত শানু স্বাগতা। এ পরিস্থিতিতে তিনি স্বল্পআয়ের মানুষের সেহেরির ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। প্রথম রমজান থেকে কাজটি করছেন তিনি। এ বিষয় স্বাগতা বলেন, ‘করোনার এই পরিস্থিতিতে বাসায় কাজের মানুষ নেই। এ জন্য খুব বেশি মানুষের জন্য সেহেরি তৈরি করতে পারছি না। নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমার রান্না করা খাবার স্বেচ্ছাসেবকরা এসে নিয়ে যাচ্ছেন। তারা আমার মতো আরো অনেকের কাছ থেকেই খাবার সংগ্রহ করছেন। সেগুলো অসহায়দের মধ্যে বিতরণ করছেন। পুরো রমজান না হলেও অন্তত প্রথম ১০ দিন এই কাজটি করে যেতে চাই।’ এ ছাড়াও সমস্যাপীড়িত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা করেছেন স্বাগতা।

বসে নেই অভিনেত্রী শামিমা তুষ্টিও। নিজের গড়া সংগঠন ‘আমরা মানুষের ফাউন্ডেশন’-এর ব্যানারে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি। এ বিষয় তুষ্টি বলেন, ‘আমাদের ফাউন্ডেশনের স্স্নোগান- দায়িত্ব আমার, আনন্দ সবার। ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে সাধ্যমতো অসহায় মানুষের ইফতারের ব্যবস্থা করছি, চেষ্টা করছি যে সব পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা আমাদের জন্য এই শহরকে পরিষ্কার রাখছে তাদের জন্য কিছু করার। পাশাপাশি নিম্নমধ্যবিত্ত মানুষের পাশে নিয়মিত দাঁড়াচ্ছি।’ এ সময় অভিনেত্রী সবাকেই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘আমরা অসহায় মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাল, ডাল, পেঁয়াজ, আলু, তেল, মুড়ি, চিড়া, চিনি, হাত ধোয়ার সাবানের প্যাকেট দিয়ে আসছি। চাই নিয়মিতভাবে এই মানবিক কাজটি করতে। তাই আপনাদের সহযোগিতা প্রয়োজন। কেউ চাইলে আমাদের ফাউন্ডেশনে আর্থিকভাবে সহযোগিতা করতে পারেন। যাতে আমরা এই কার্যক্রমটি আরো বেশি দিন চালাতে পারি।’ তুষ্টি আরও বলেন, ‘সব পেশার মতোই আমাদের অভিনয় শিল্প একটি পেশা, কিন্তু কোথায় যেন আমরা একটু অবহেলিত? এই করোনায় আমাদের অভিনয় শিল্পের সব শিল্পী কলাকুশলী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। আমরা সমাধানের পথ খুঁজে পেতে সবাই মিলে চেষ্টা করছি। নিশ্চয়ই সৃষ্টিকর্তা আমাদের জন্য সুন্দর আগামী রেখেছেন। যেখানে আবারো সবার সঙ্গে হাসিমুখে দেখা হবে।’

লাইট নিউজ