বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

একদিনে ২৬ কোটি টাকার দুধ-ডিম বিক্রি

করোনা সংকটে সারাদেশের খামারিদের উৎপাদিত দুধ, ডিম ও পোল্ট্রি ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় কেন্দ্রের মাধ্যমে বিক্রির উদ্যোগ নিয়েছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়। সোমবার (২৭ এপ্রিল) প্রাণিসম্পদ দফতরসমূহের তত্ত্বাবধানে আট বিভাগের ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় কেন্দ্রে ২৬ কোটি ৭২ লাখ ৫৫ হাজার ৪৭৬ টাকার দুধ, ডিম ও পোল্ট্রি মুরগি বিক্রি করা হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন জেলা ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ দফতরগুলোর মাধ্যমে এ উদ্যোগ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা ইফতেখার হোসেন জানিয়েছেন, এর মধ্যে ২৪ লাখ ১০ হাজার ৮৮১ লিটার দুধ, ১ কোটি ১৮ লাখ ৮৭ হাজার ২৮৯টি ডিম এবং ১৫ লাখ ৮৬ হাজার ৬ ৬২টি পোল্ট্রি মুরগি বিক্রি করেছেন খামারিরা। এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রাণিসম্পদ অধিদফতরে স্থাপিত মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২২ এপ্রিল দেশের প্রান্তিক পর্যায়ের চাষি, খামারি এবং উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত মাছ, দুধ, ডিম ও পোল্ট্রি মুরগি সরবরাহ ও বাজারজাত করার উদ্যোগ নিতে সব জেলা ও উপজেলায় কর্মরত মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেয় মন্ত্রণালয়। করোনা পরিস্থিতিতে বাজারজাতকরণ সংকটে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত উৎপাদক, খামারি ও উদ্যোক্তাদের কথা মাথায় রেখে এবং ভোক্তাদের প্রাণিজ পণ্য প্রাপ্তির চাহিদা বিবেচনা করে এ নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সংশ্লিষ্ট অ্যাসোসিয়েশন, উদ্যোক্তা ও খামারিদের সহযোগিতায় স্থানীয় প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে এ উদ্যোগ গ্রহণের জন্য বলা হয় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের।

লাইটনিউজ/এসআই