বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

দুর্দিনে ছাঁটাই না করে কর্মীদের পাশে থাকার অঙ্গীকার রানার গ্রুপের

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : করোনাভাইরানের প্রার্দুভাবে ইউরোপ আমেরিকাসহ পুরো পৃথিবী এক গভীর সংকটে পতিত হয়ে। ইতিমধ্যে আইএলওসহ আন্তর্জাতিক আরো কয়েকটি সংস্থা বিশ্বব্যাপী কয়েক কোটি মানুষের চাকুরি হারিয়ে বেকার হওয়ার কথা জানিয়েছে। বাংলাদেশেও পড়েছে এর বিরূপ প্রভাব। সরকারের বহুমুখী পদক্ষেপের পরও গার্মেন্টসহ অসংখ্য প্রতিষ্ঠান ব্যস্ত হয়ে পড়েছে কর্মী ছাঁটাই করতে।

ঠিক এমন সময় কর্মীদের জন্য অভিভাবকের ভূমিকায় দাড়ালো দেশের অন্যতম বৃহত্তম গ্রুপ অব কোম্পানি এবং বাংলাদেশের সর্বপ্রথম মোটরসাইকেল উৎপাদন ও রফতানি কারক প্রতিষ্ঠান রানার গ্রুপ।

প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান এক বার্তায় তার কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘সংকটময় এই সময়ে আমরা এবং কোম্পানির প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে সকল কর্মকর্তা এবং কর্মচারীদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা নিশ্চিত করা। সেই লক্ষ্যে আপনাদের সবার এপ্রিল মাসের পূণাঙ্গ বেতন পৌঁছে দেবার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আমি আপনাদেরকে আরো আশ্বস্ত করছি যে, এই সময়ে কোনো কর্মকর্তা ও কর্মচারী ছাঁটাইয়ের পরিকল্পনা আমাদের নেই।’

ওই বার্তায় হাফিজুর রহমান খান আরো বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি আপনারাই কোম্পানির চালিকাশক্তি। আজকে আমরা যে ব্যাপক ব্যবসায়িক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছি, আপনাদের সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় তা আমরা কাটিয়ে উঠবো ইনশা আল্লাহ। এই অনিশ্চয়তার সময় কাটিয়ে আমরা শীঘ্রই পূর্ণ উদ্যমে ব্যবসা পূনর্গঠনে ঝাঁপিয়ে পরতে পারবো।’

তিনি আরো বলেন, ‘করোনাভাইরাস সংক্রমণের এই সময় ঘরে থাকুন, সরকারের নির্দেশনাবলী মেনে চলুন, নিজে ভালো থাকুন এবং পরিবারের সবাইকে ভালো রাখুন। রানার আপনার পাশে আছে ও থাকবে।’

কর্মীদের উদ্দেশ্যে লেখা রানার গ্রুপের চেয়ারম্যানের বার্তাটি পাঠকদের উদ্দেশ্যে হুবহু তুলে ধরা হলো :