বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

মাসে ১০ দিনের প্রণোদনা পাবে ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

করোনাভাইরাস মহামারীতে সীমিত আকারে চালু থাকা ব্যাংকিং কার্যক্রমে নিয়োজিত কর্মকর্তারা সারা মাস দায়িত্ব পালন করলেও ১০ দিনের বেশি প্রণোদনা ভাতা পাবেন না। অতিরিক্ত সময় ব্যাংকে উপস্থিত হওয়ার জন্য শুধুমাত্র নিয়মিত বেতনের অতিরিক্ত যাতায়াত ভাতা পাবেন।

মঙ্গলবার (৫ মে) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সাধারণ ছুটিকালীন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা দশ কর্মদিবসের বেশি ব্যাংকে উপস্থিত থাকলেও তিনি একমাসের সমপরিমাণ বিশেষ ভাতার বেশি পাবেন না। তবে দশ কার্যদিবসের কম উপস্থিত থাকলে আনুপাতিক হারে উক্ত ভাতা প্রাপ্য হবেন।

এতে আরও উল্লেখ করা হয়, ব্যাংকে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারী যারা সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটিকালীন ব্যাংকে গিয়ে ব্যাংকিং কার্যক্রমে অংশগ্রহণের মাধ্যমে দায়িত্ব পালন করেছেন বা করছেন তারা বিশেষ প্রণোদনা ভাতা প্রাপ্য হবেন।

সাধারণ ছুটিকালীন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কমপক্ষে ১০ কার্যদিবস ব্যাংকে গিয়ে কর্মরত থাকলে তা পূর্ণমাস হিসেবে গণ্য হবে। তবে ১০ কার্যদিবসের কম ব্যাংকে উপস্থিত হয়ে কর্মরত থাকলে সেক্ষেত্রে আনুপাতিক হারে ভাতা প্রাপ্য হবেন। ব্যাংকের স্থায়ী, অস্থায়ী ও চুক্তিভিত্তিক সব পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এ সুবিধায় অন্তর্ভুক্ত হবেন।

নির্ধারিত রোস্টারিং ডিউটি কিংবা ব্যাংকের প্রয়োজনে দশ কার্যদিবসের বেশি স্বশরীরে দশ কার্যদিবসের পরবর্তী কার্যদিবসগুলোর জন্য ব্যাংকের নিজস্ব নীতিমালার আওতায় যাতায়াত ভাতা হিসেবে প্রাপ্য হবেন।

লাইটনিউজ/এসআই