বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

রংপুরে আরো ২১ জন আক্রান্ত

রংপুর বিভাগের ৮ জেলায় বুধবার সকাল ৮ টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে আরও ৭৪৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এছাড়া এই বিভাগে এ পর্যন্ত ৩ জনের মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া গেছে।

রংপুর বিভাগে একই দিনে ২১ জনসহ এ পর্যন্ত ২২২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। এ বিভাগে এ পর্যন্ত মোট ২০ হাজার ৬৬৩ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাসে মৃত্যুর মধ্যে-দিনাজপুর, নীলফমারী এবং গাইবান্ধা জেলায় ১ জন করে এ রোগে মৃত্যুবরন করেছে। আক্রান্ত রোগীর মধ্যে রংপুরে সর্বচ্চ ৮২ জন, এর মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে ২৩ জন। পঞ্চগড়ে ৯ জন, নীলফামারীতে ৩১ জনের মধ্যে ২০ জন হাসপাতালে চিকিৎসারত, লালমনিরহাটে ৪ জনের মধ্যে ২ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, কুড়িগ্রামের ২২ জন রোগীর মধ্যে ২১ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, ঠাকুরগাঁয় ২১ জন রোগীর মধ্যে ১৪ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, দিনাজপুরে ২৯ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে এবং গাইবান্ধাা জেলায় ২৪ জন রোগীর মধ্যে ১১ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন বলে রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক কার্যলয়ের সূত্রে জানা গেছে।

নতুন করোনাভাইরাস আক্রান্ত আশংকায় গত ২৪ ঘণ্টায় হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা রয়েছে ৭৪৪ জন। এর মধ্যে রংপুরে ৫৮, পঞ্চগড়ে ১২, নীলফামারীতে ২৪৪, কুড়িগ্রামে ৭৩, ঠাকুরগাঁয় ২২, দিনাজপুরে ২৬৯, গাইবান্ধায় ৬৬, জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। বুধবার সকাল ৮ টা পর্যন্ত এ নিয়ে বর্তমানে রংপুর বিভাগের ৮ জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা মানুষের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৯৫৭ জনে।

রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার পর্যন্ত রংপুর বিভাগের ৮ জেলায় ২৪ ঘণ্টায় ২৯৮ জনসহ মোট ২০ হাজার ৬৬৩ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। বর্তমানে এই বিভাগে হোম কোয়ারেন্টাইনে অবস্থান করছে ৬ হাজার ৯৫৭ জন। এর মধ্যে রংপুরে ৮০৯, পঞ্চগড়ে ২৯৯, নীলফামারীতে ১ হাজর ৯০৯, লালমনিরহাটে ২৮৫, কুড়িগ্রামে ৬৩৫, ঠাকুরগাঁও জেলায় ৩৪৫ জন, দিনাজপুরে ১ হাজার ৮২৩ জন এবং গাইবান্ধা জেলায় ৮৫২ জনসহ মোট ৬ হাজার ৯৫৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিরা সুস্থ্য রয়েছেন।

এদিকে ৫ মে মঙ্গলবার বিকেলে পাওয়া রির্পোট অনুযায়ী রংপুর বিভাগের কেবল রংপুর জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

গত ৫ মে মঙ্গলবার বিকেলে রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ্য ডাক্তার একেএম নুরুন্নবী লাইজু জানান, কলেজের পিসিআর মাইক্রো বায়োলজি করোনা ল্যাবে রংপুর বিভাগের ৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে এই বিভাগে নতুন করে রংপুর জেলার ৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের জীবাণু শনাক্ত করা হয়েছে। আক্রান্ত ব্যক্তিরা সবাই হচ্ছেন রংপুরের।

রংপুরের সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রংপুরে পুলিশ ও নার্সসহ ৭ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে রংপুর পুলিশ লাইনের ২ জন পুলিশ সদস্য, রংপুর মেডিকেল কলেজে হাসপাতালের ২ জন নার্স, রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের একজন স্টাফ, নগরীর জুম্মাপাড়া এলাকার ৪২ বছর বয়সী একজন পুরুষ এবং রংপুর সিটি কর্পোরেশন এলাকার ৪৭ বছর বয়সী একজন পুরুষের শরীরে করোনাভাইরাসের জীবাণ শনাক্ত করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে, রংপুর বিভাগের ৮ জেলা থেকে এ পর্যন্ত ৪৩ জন রোগী সুস্থ হওয়ায় তাদের ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে রংপুরে ৬, পঞ্চগড়ে ১, নীলফামারীতে ১০, লালমনিরহাটে ২, কুড়িগ্রামে ৩ জন, ঠাকুরগাঁওয়ে ৫ এবং গাইবান্ধা জেলায় ১২ জন সুস্থ হয়েছেন।

লাইটনিউজ/এসআই