বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

চট্টগ্রামেও এবার অধিকাংশ মার্কেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : কিছু নির্দেশনা মেনে খোলার সুযোগ থাকলেও রাজধানী ঢাকার পর করোনার কারণে চট্টগ্রামেও এবার অধিকাংশ মার্কেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্যবসায়ী ও দোকান মালিক সমিতির নেতারা।

শুক্রবার সম্মিলিতভাবে ১১টি মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির পক্ষ থেকে এসব ঘোষণা দেওয়া হয়। তবে এখনো বেশ কয়েকটি বড় মার্কেট খোলা ও বন্ধ রাখা নিয়ে দোটানায় রয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

এ প্রসঙ্গে মিমি সুপার মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জাকির হোসেন বলেন, শুক্রবার আমার ১১টি মার্কেটের ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক বসে সম্মিলিতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি আগামী ৩১ মে পর্যন্ত কোন মার্কেট খুলবো না। সব মার্কেট বন্ধ থাকবে। করোনা দিন দিন বাড়ায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, মার্কেট খোলা রাখলে একজন করোনা রোগী আসলে পুরো মার্কেটের সকলেই আক্রান্ত হবো। এখন তো ডাল ভাত খেতে পারছি, মারা গেলে কেউ পাশে আসবে না। জানাজাও পাবো না। তাই এ সিদ্ধান্ত।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (সিটি এসবি) আব্দুল ওয়ারিশ বলেন, কিছু কিছু মাকের্টের ব্যবসায়ী সমিতি নিজ থেকেই তারা মার্কেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। আমরা এখনো মোট কয়টি মার্কেট বন্ধ করেছে এবং কয়টি খোলা রাখতে সে হিসাব পাইনি। তবে অধিকাংশ ব্যবসায়ীই মার্কেট বন্ধ রাখার পক্ষে বলে তথ্য পাচ্ছি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, করোনার আক্রান্ত দিন দিন বাড়তে থাকায় চট্টগ্রামে মিমি সুপার মার্কেট, স্যানমার ওশান সিটি, ফিনলে স্কোয়ার, চট্টগ্রাম শপিং কমপ্লেক্স, কল্লোল সুপার মার্কেট, আফমি প্লাজা, আমিন সেন্টার, সেন্ট্রাল প্লাজা, আখতারুজ্জামান সেন্টার, সিঙ্গাপুর-ব্যাংকক মার্কেট ও খুলশীর কনকর্ড মার্কেট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন মার্কেটগুলোর ব্যবসায়ী সমিতিগুলো। শুক্রবার মিমি সুপার মার্কেট প্রাঙ্গণে এক বৈঠক থেকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

লাইট নিউজ