বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

ঠাকুরগাঁও জেলা কারাগারের ১৬ কারাবন্দীকে মুক্তি

 

করোনায় চাপ কমাতে সরকারের সাধারণ ক্ষমার আওতায় ঠাকুরগাঁও জেলা কারাগারের আরও ১৬ জন বন্দিকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। এর আগে গত ৬ মে দুইজন ও পরবর্তীতে আরও একজনসহ এ নিয়ে মোট ১৯ জন কারাবন্দীর মুক্তি দেওয়া হলো। শুক্রবার সন্ধ্যায় ঠাকুরগাঁও জেলা কারাগারের সুপার মো: জাবেদ মেহেদী মুক্তিলাভের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মুক্তি প্রাপ্তরা হলেন, মুক্তি প্রাপ্তরা হলেন-খাদেমুল ইসলাম (৩৫), মোফাজ্জল হোসেন (৪৫), আল মামুন (২৩), রবিউল ইসলাম (২৮), সুমন ইসলাম (২০), ফজলুল করিম (২৮), শহিদ আলী (২৮), দিলদার আলী (৩৮), জয় চন্দ্র (৪০), সৌমিক আহম্মেদ (২৩), সোহেল রানা (২৭), মোমিনুল ইসলাম (২০), আরিফুল ইসলাম (২৮), ওমর ফারুক (২৮), মোফাজ্জল হোসেন (৪৩) ও সামুয়েল রানা (৩৭)।

ঠাকুরগাঁও জেলা কারাগারের সুপার মোঃ জাবেদ মেহেদী জানান, মুক্তির তালিকার মধ্যে প্রথম পর্যায়ে ২২ জনের মুক্তির আদেশ আসে। এর মধ্যে গত কয়েকদিন আগে ৩ জনকে মুক্তি দেয়া হয় এবং শুক্রবার ১৬ জনকে মুক্তি দেয়া হয়। বাকী ৩ জন অর্থদণ্ড দিলেই তাদের মুক্তি দেয়া হবে।

এর আগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ শাখার নির্দেশনা অনুযায়ী ঠাকুরগাঁও থেকে ৩৭ জনের মুক্তির প্রস্তাব করে তালিকা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। প্রস্তাবিত তালিকার সবাই পুরুষ। পরবর্তীতে মুক্তির নির্দেশ প্রদান করে আরও কিছু বন্দির নাম আসতে পারে।

তিনি বলেন, ঠাকুরগাঁও জেলা কারাগারের ধারণ ক্ষমতা সবমিলিয়ে ১৬৫ জন হলেও বর্তমানে ১৩ জন মহিলা সহ সেখানে ৩৫২ জন বন্দি রয়েছেন। ইতিমধ্যে দর্শনার্থীদের সাথে সাক্ষাত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও কারাগারের বাইরে ও ভেতরে নিয়মিত ভাইরাস নাশক ওষুধ স্প্রে করা হচ্ছে।