বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় সর্বোচ্চ আক্রান্ত ৮৮৭ মৃত্যু ১৪

স্টাফ রিপোর্টার : দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে  ১৪ জনের। একই সময়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন ৮৮৭ জন।

রোববার (১০ মে ২০২০) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান। দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত এ ব্রিফিং অনলাইনে হয়।

এপর্যন্ত ঢাকার মোট ১৮০ টি স্পটে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। এর মধ্যে ১৮টি স্থানে সর্বাধিক সংক্রমিত হয়েছে। বিশেষ করে ৮টি স্থানে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে একশ’র বেশি।

আইডিসিআর সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানী ঢাকার রাজারবাগে আক্রান্তের সংখ্যা রয়েছে সর্বচ্চো স্থানে। এপর্যন্ত স্থানটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২০০ জন। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় আর নতুন করে কেউ আক্রান্ত হয়নি। এরপর ২য় অবস্থানে রয়েছে যাত্রবাড়ি। গত ২৪ ঘণ্টায় যাত্রাবাড়িতে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছে ১৩ জন। এখন পর্যন্ত যাত্রবাড়িতে মোট সংক্রমণের সংখ্যা ১৮২ জন। যা গত ৮ মে’তে ছিল ১৬৯ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় স্থানে রয়েছে কাকরাইল। এই এলাকাতে সর্ব মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৭৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আর নতুন করে কেউ আক্রান্ত হয়নি। চতুর্থ স্থানে রয়েছে মহাখালি এলাকা। এখানে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ১৩ জন। এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫৯ জন। ৫ম সর্বোচ্চ আক্রান্ত এলাকার স্থানে রয়েছে মুগদা। এখানে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৭ জন। এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫৬ জন।

আইডিসিআর সূত্রে আরো জানা গেছে, ৬ষ্ঠ সর্বোচ্চ আক্রান্ত এলাকার স্থানে রয়েছে মোহাম্মদপুর। এখানে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৬ জন। এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৩২ জন। এরপর অষ্টম অবস্থানে রয়েছে তেজগাঁও। গত ২৪ ঘণ্টায় যাত্রাবাড়িতে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছে ৩ জন। এখন পর্যন্ত মোট সংক্রমণের সংখ্যা ১০১ জন। যা গত ৮ মে’তে ছিল ৯৮ জন।

উল্লেখ্য, দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত (কোভিড-১৯) প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

লাইট নিউজ