বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পাচ্ছেন ৫০ লাখ পরিবার

করোনা সংকটে কর্মহীন মানুষের মাঝে নগদ অর্থ সহায়তা দিতে যাচ্ছে সরকার। বৃহস্পতিবার (১৪ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মোবাইল ব্যাংকিং পরিসেবার মাধ্যমে সুবিধাভোগীদের সরাসরি নগদ অর্থ প্রেরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন।

এর আগে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে জেলাগুলোর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সকালে প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছিলেন ঈদের আগে কর্মহীন মানুষের কাছে নগদ অর্থ পৌঁছে দেওয়া হবে। তারই ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পাচ্ছেন ৫০ লাখ পরিবার। প্রতি পরিবারে ৪জন করে সদস্য ধরে এই নগদ সহায়তায় উপকার ভোগী হবে প্রায় ২ কোটি মানুষ। এ জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ১ হাজার ২৫০ কোটি টাকা।

এই সহায়তা কর্মসূচির আওতায় আসছে নিম্ন আয়ের মানুষ যেমন রিকশাচালক, ভ্যানচালক, দিনমজুর, নির্মাণ শ্রমিক, কৃষিশ্রমিক, দোকানের কর্মচারী, ব্যক্তি উদ্যোগে পরিচালিত বিভিন্ন ব্যবসায় কর্মরত শ্রমিক, পোলট্রি খামারের শ্রমিক, বাস-ট্রাকের পরিবহন শ্রমিকসহ নিম্ন আয়ের নানা পেশার মানুষ।

যারা লকডাউনের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন সেসব অসহায় মানুষের কাছে এই অর্থ সহায়তা তুলে দেওয়া হবে। প্রতি পরিবারকে ২৫০০ টাকা করে দেওয়া হবে।

ইতোমধ্যে সহায়তা প্রাপ্য নিম্ন আয়ের মানুষের তালিকা করা হয়েছে। জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান, গ্রামের মেম্বার, শিক্ষক, সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সমন্বয়ে গঠিত কমিটি এই তালিকা তৈরি করেছেন।

তালিকাভুক্তদের মধ্যে নগদ, বিকাশ, রকেট, এবং শিউরক্যাশ এর মাধ্যমে সরাসরি এই টাকা চলে যাবে। ফলে বাড়তি কোন ঝামেলা পোহাতে হবে না তাদের। টাকা পাঠানোর খরচ সরকার বহন করবে। এই টাকা উত্তোলন করতে ভাতাভোগীদের কোন খরচ দিতে হবে না। এই ৫০ লাখ পরিবারের বাইরে আরও ৫০ লক্ষ পরিবারের প্রায় ২ কোটি সদস্য আগে থেকেই ভিজিএফ কার্ডের আওতায় রয়েছেন। এছাড়াও রয়েছে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, শিক্ষা ভাতা ও প্রতিবন্ধী ভাতা।

লাইটনিউজ/এসআই