বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

স্ত্রী-সন্তানও নিষিদ্ধ!

ইংল্যান্ড সফরে যেতে পাকিস্তান দলকে ছাড়পত্র দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ইমরান খান। তোড়জোর তাই শুরু হয়ে গেছে। এর মধ্যে কিছু বিধিনিষেধও আছে। এই যেমন ধরুন, সফরে পরিবার নিয়ে যাওয়া যাবে না। পরিবার আলাদাভাবে গেলেও লাভ নেই খেলোয়াড় ও স্টাফদের। দেখা করা নিষেধ।

৩০ জুলাই থেকে শুরু হবে তিন ম্যাচের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ। জীবাণুমুক্ত পরিবেশে দুটি সিরিজ আয়োজন করা হবে। ইংল্যান্ডে পা রেখে কোয়ারেন্টিনেও থাকতে হবে পাকিস্তান দলকে। অন্যান্য সতর্কতামূলক ব্যবস্থা তো থাকছেই।

সেই সতর্কতারই অংশ হিসেবে ইংল্যান্ড সফরে পরিবার সঙ্গে নেওয়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। এমনকি পরিবার আলাদাভাবে গেলেও সেখানে দেখা করা যাবে না। সংবাদসংস্থা পিটিআইকে এ নিয়ে পিসিবির এক সূত্র বলেছেন, ‘খেলোয়াড়দের বোর্ড পরিষ্কার করে বলে দিয়েছে, পরিবার সঙ্গে নেওয়া যাবে না। এমনকি এ কথাও বলা হয়েছে, পরিবার আলাদাভাবে গিয়ে থাকলেও কোনো লাভ নেই। সেপ্টেম্বরে সফর শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত গোটা দলের কেউ পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে পারবে না।’

মোট ২৯ জন খেলোয়াড় ও ১৪জন অফিশিয়াল ইংল্যান্ড সফরে পাঠাবে পিসিবি। হারিস সোহেলের সফর থেকে নাম প্রত্যাহার করার এটাই মূল কারণ, জানায় সংবাদমাধ্যম। ২০১৫ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের এক হোটেল কক্ষে ভূত দেখে ভয় পাওয়ার কথা জানান বাঁ হাতি এ ব্যাটসম্যান।

এরপর থেকে বউ নিয়ে বিদেশ সফরে তাঁকে অনুমতি দেয় পিসিবি। কিন্তু এবার করোনাভাইরাসের জন্য পিসিবি অনড় সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ইংল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন না হারিস। বিদেশ সফর কিংবা বিদেশে গিয়ে একা থাকতে অভ্যস্ত নন তিনি। সে সূত্র জানিয়েছে, ‘বোর্ড খেলোয়াড়দের বলেছে ,ইংল্যান্ডে গিয়ে বার্মিংহামে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।’

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে পাকিস্তান দলকে আনতে বিশেষ ভাড়া করা বিমানের ব্যবস্থা করবে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। সংবাদমাধ্যমে গুঞ্জন চলছে, এ জন্য ইসিবির প্রায় ৫ লাখ পাউন্ড খরচ হবে। এই সিরিজে সম্প্রচার স্বত্ত্ব থেকে ৭০-৭৫ মিলিয়ন পাউন্ড আয়ের সম্ভাবনা রয়েছে ইসিবির। করোনাভাইরাসের কারণে মৌসুমে খেলা না গড়ালে প্রায় ৩৮০ মিলিয়ন পাউন্ড ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে ইসিবির।