বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

উসকানি বন্ধ করুন, ভারতকে চীনা সেনাবাহিনীর হুঁশিয়ারি

লাদাখে চীনা সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষে কমপক্ষে ২৩ ভারতীয় সেনা নিহত হওয়ার পর দুই দেশের মধ্যে সামরিক উত্তেজনা হঠাৎ বহুগুণ বেড়ে গেছে। এবার ভারতকে গালওয়ান সীমান্তে সব ধরনের উসকানিমূলক তৎপরতা বন্ধ করার জন্য হুঁশিয়ারি দিয়েছে চীনা সেনাবাহিনী। একইসঙ্গে দু’দেশের মধ্যকার বিতর্কিত বিষয়গুলো আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করার লক্ষ্যে নয়াদিল্লিকে সঠিক পথে ফিরে আসারও আহ্বান জানিয়েছে।

চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির পশ্চিম কমান্ডের মুখপাত্র সিনিয়র কর্নেল ঝাং শুয়িলি বলেছেন, ‘গত সোমবার রাতে ভারতীয় সেনারা দু’দেশের সীমান্তবর্তী গালওয়ান উপত্যকা অঞ্চল দিয়ে নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করার মাধ্যমে নিজেদের প্রতিশ্রুতি চরমভাবে লঙ্ঘন করে। যার ফলে দু’পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী শারীরিক সংঘাত ও হতাহতের ঘটনা ঘটে।’

ঝাং গতকাল মঙ্গলবার রাতে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে আরো বলেন, ভারত ও চীনের শীর্ষস্থানীয় সেনা কর্মকর্তাদের মধ্যে বৈঠকে যে সমঝোতা হয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী তা মারাত্মকভাবে লঙ্ঘন করেছে। তিনি দাবি করেন, গালওয়ান উপত্যকা সব সময় চীনের মালিকানায় ছিল এবং ভারতের এ পদক্ষেপ ছিল দ্বিপক্ষীয় সামরিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে মারাত্মক ক্ষতিকর।

পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চীনা সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষে ভারতীয় সেনাবাহিনীর অন্তত ২৩ জওয়ান নিহত হওয়ার পর চীনা সেনাবাহিনী ভারতের প্রতি এ হুঁশিয়ারি দিল।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে এর আগে বলা হয়েছিল, সোমবার রাতের সংঘর্ষে এক কর্নেল এবং দুই সেনা নিহত হয়েছে। তবে মঙ্গলবার রাতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর বরাত দিয়ে সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, সংঘর্ষে তাদের অন্তত ২৩ জওয়ান নিহত হয়েছে। ভারতের হামলায় চীনা সেনাবাহিনীর ৪৩ সদস্য হতাহত হয়েছে বলে নয়াদিল্লি জানালেও বেইজিং তা এখনো স্বীকার বা অস্বীকার করেনি।

সূত্র- পার্স টুডে।