বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

ক্ষেপে আগুন পেপ গার্দিওলা

 

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যেই চালু হয়ে গেছে ইউরোপিয়ান ঘরোয়া ফুটবল। জার্মানি, ইতালি ও স্পেনের পর পুনরায় শুরুর অপেক্ষায় ইংলিশ ফুটবল। মৌসুম শেষ করতে হলে প্রতি সপ্তাহে অন্তত দুটি করে ম্যাচ খেলতে হবে ইংল্যান্ডের ক্লাবগুলোকে। তাতে চটেছেন ম্যানচস্টোর সিটির প্রধান কোচ পেপ গার্দিওলা।

আগামী বুধবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে আর্সেনালের মুখোমুখি হবে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। তিনদিন পর আরো একটি ম্যাচ খেলতে হবে গার্দিওলার দলকে। শুধু সিটিই নয়, অন্য দলগুলোরও একই অবস্থা। সপ্তাহে খেলতে হবে অন্তত দুটি ম্যাচ। যা শুধু কঠিনই নয়, প্রায় অসম্ভব। স্বাভাবিকভাবেই হতাশ দলগুলো।

তাদের মধ্যে মুখ খুললেন সিটি কোচ গার্দিওলা, ‘যত দ্রুত সম্ভব আমাদের লিগ শেষ করতে হবে। প্রিমিয়ার লিগ নির্ধারণের জন্য আমাদের খেলতে হবে। এখানে মানুষের জীবন গুরুত্বপূর্ণ। আগামীকাল (বুধবার) আমাদের একটা ম্যাচ খেলতে হবে। আমরা চেষ্টা করব ভালো করার। এর তিনদিন পর আরো একটা ম্যাচ আমাদের সামনে। দুদিন পর আরেকটা ম্যাচ। এটা খুব কঠিন।’

গার্দিওলা আরো বলেছেন, ‘আমাদের হাতে সময় আছে তিন বা সাড়ে তিন সপ্তাহ। এর মধ্যে আমাদের ৯/১০টি ম্যাচ খেলতে হবে। এই অবস্থায় সবাইকে ভুগতে হবে। অর্থনীতির সঙ্গে আমাদের জীবনযাত্রার খাপ খাওয়াতে হবে। দুই তিনদিন পরপর ম্যাচ খেলতে হবে। আমরা এভাবে খেলার জন্য প্রস্তুত নই। খেলোয়াড় পরিবর্তন করে করে খেলাতে হবে। খেলোয়াড়রা শারীরিকভাবে ঠিক আছে। জানি না এরপর কী হবে।’

ইংলিশ ফুটবল অঙ্গনে সবার আগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন আর্সেনাল কোচ মিকেল আর্তেতা। তিনি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সিটির বিরুদ্ধে ডাগ আউটেও দেখা যাবে তাকে। আর্তেতার এই ফেরায় ভীষণ খুশি হয়েছেন সিটি কোচ গার্দিওলা। মঙ্গলবার ম্যাচের আগে তিনি বলেছেন, ‘মিকেলকে (আর্তেতা) আবার দেখতে পাবো এটা ভাবতেই দারুণ লাগছে।’