বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

মোবাইলের প্যাকেটে ভিমবার : ইভ্যালির পার্সেল

 

করোনাকালে মানুষ আগের তুলনায় আরো বেশি নির্ভরশীল হচ্ছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর। কিন্তু এই ক্রান্তিকালকে সুযোগ হিসেবে নিয়ে কখনো কখনো গ্রাহকদের সঙ্গে বড় ধরনের প্রতারণার খবর আসছে প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে। এমন একটি প্রতিষ্ঠান ‘ইভ্যালি’র বিরুদ্ধে সম্প্রতি একজন গ্রাহক অভিযোগ করেছেন, অগ্রিম টাকা পাঠিয়ে মোবাইলের অর্ডার দেওয়ার পর যে প্যাকেট ডেলিভারি দেওয়া হয়েছে, তাতে পাওয়া গেছে ভিমবার সাবান!

বেসরকারি ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করা রেজাউল করিম রিয়ালমি-সিথ্রি ব্র্যান্ডের একটি স্মার্টফোনের অর্ডার দেন অনলাইন বাজার ইভ্যালিতে। প্রতিষ্ঠানটির নিয়মানুযায়ী আগেই পুরো টাকা পরিশোধ করতে হয়েছে। গত ১৪ জুন মেহেদি হাসান নামে একজন ডেলিভারি ম্যান তাকে মোবাইলের প্যাকেটটি পৌঁছে দেয়। দেখা যায়, প্যাকেটে মোবাইলের পরিবর্তে রয়েছে একটি ভিমবার সাবান। ওই ডেলিভারি ম্যান প্যাকেটটি ফেরত নিয়ে গেলেও এখনো পাঠানো হয়নি রেজাউলের মোবাইল।

রেজাউল করিম বলেন, আমি সঙ্গে সঙ্গে ইভ্যালিতে যোগাযোগ করেছি। কিন্তু দুঃখ প্রকাশ করা তো দূরের কথা, উল্টো তারা আমার সঙ্গে বাজে ব্যবহার করেছে। তখনই আমি বুঝলাম, বিষয়টা স্রেফ ‘ভুল’ নয়, ইচ্ছাকৃত। তাই ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণে এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ করেছি।

এ ব্যাপারে ইভ্যালির ওয়েবসাইটে দেওয়া ০৯৬৩৪১১১৬৬৬ এই নম্বরে বারবার চেষ্টা করেও কারো সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। তবে যে ব্যক্তি ডেলিভারির দায়িত্বে ছিলেন তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে তিনি বলেন, আমি সেই প্যাকেট অফিসে পৌঁছে দিয়েছি। এখন অফিস যদি কোনো ব্যবস্থা না নেয় তাহলে তো আমার কিছু করার নেই। আমার কাজ তো শুধু গ্রাহকের কাছে পণ্য পৌঁছে দেওয়া।