ভারতীয় সেনাতে গোর্খা সৈন্যের অংশগ্রহণের চুক্তি এখন অকার্যকর, দাবি নেপালের

ডেস্ক রিপোর্ট : নেপালের সাথে ভারতের সম্প্রতি চলমান সীমান্ত সংকট যেন আরও প্রকট হয়ে উঠছে। এরমধ্যেই ১৯৪৭ সালে ভারত, নেপাল ও ব্রিটেনের মধ্যে সম্পাদিত ত্রিপাক্ষিক চুক্তি মোতাবেক, ভারতীয় সেনাবাহিনীতে নেপালের গোর্খা সৈন্যদের যোগদানের বিষয়টি বর্তমানে অকার্যকর বলে উল্লেখ করেছেন নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রদীপ গ্যাওয়ালি। এই বিষয়ে তিনি ভারত ও ব্রিটেনের সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাবও দিয়েছেন। খবর হিন্দুস্তান টাইমস’র।

শুক্রবার নেপাল ইন্টিটিউট অফ ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনস আয়োজিত এক ওয়েবিনারে গ্যাওয়ালি বলেন, ‘সীমান্ত সংক্রান্ত সমস্যা সংঘর্ষে পরিণত হওয়ার আগে আমরা এখনও ভারতকে সমাধানের জন্য যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বৈঠকে বসতে বলছি। আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সংযোগ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’

গ্যাওয়ালির অভিযোগ, কোভিড অতিমারীর দোহাই দিয়ে নেপালের প্রস্তাব এড়িয়ে গিয়েছে ভারত।

তিব্বতে মানস সরোবর তীর্থযাত্রীদের জন্য ভারতের সড়ক তৈরি করা নিয়ে সমস্যা শুরু হওয়ার পর সম্প্রতি কালাপানি, লিপুলেখ ও লিম্পিয়াধুরা নিয়ে সীমান্ত বিবাদ ভারত-নেপাল সম্পর্কে মারাত্মক ফাটল দেখা দিয়েছে। নতুন প্রকাশিত মানচিত্রে ওই তিন স্থান নিজেদের ভূখণ্ড বলে দাবি করে নেপাল সরকার।

তবে গ্যাওয়ালির জানান, ভারত নেপালের মধ্যকার সম্পর্ক থেকে সীমান্ত সমস্যাকে আলাদ করে রাখতে পুরোটাই সফল হয়েছে নেপাল সরকার। এমনকি ভারতের সাথে এসময় ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশীসূলভ আচরণও প্রত্যাশা করেন তিনি।

লাইট নিউজ

Facebook Comments