বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

শ্রীলঙ্কা সফর নিয়েই যত ভাবনা রুবেলের

করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরই ঢাকা ছেড়েছিলেন তিনি। এরপরের সময়টুকু কেটেছে নিজ জেলা বাগেরহাটে। নিজেকে ফিট রাখতে সেখানেই অনুশীলন করেছেন রুবেল হোসেন। বাড়ির পাশে নদীর পাড়ে চলেছে তার ঘাম ঝরানো। তবে ঈদের পর ঢাকা চলে এসেছেন এই পেস বোলার। এখন মিরপুরের শেরে-বাংলা স্টেডিয়ামেই চলছে অনুশীলন।

রুবেলের চোখ এখন শ্রীলঙ্কা সফরে। সব ঠিক থাকলে তিন টেস্টের সিরিজ খেলতে সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কায় যাবে বাংলাদেশ দল। সেই সফরে দলের সঙ্গে থাকতে চান রুবেল। এ কারণেই মিরপুরে চলছে পরিশ্রম।

রোববার অনুশীলনের ফাঁকে রুবেল হোসেন গণমাধ্যমে তেমন কথাই শোনালেন। জানালেন, ‘করোনার কারণে ক্রিকেটারদের একটা সময় ঘরে বন্দী ছাড়া কিছুই করার ছিল না। এ সময় যার যার নিজের জেলায় চলে গিয়েছিলাম। নিজেদের মতো ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছি। বাগেরহাটে আমার ফিটনেস নিয়ে কাজ করছিলাম। রানিংও করেছি। আমার বাসা নদীর পাড়ে, বালিতেই রানিং বেশি করেছি। বোলিং-ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাইনি আমি।’

এখন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) একক অনুশীলনের সুযোগ করে দিতেই মাঠে ফিরলেন রুবেল। বলছিলেন, ‘দেখুন, করোনা তো আমাদের হাতে নেই। দেশব্যাপী মহামারী আকার নিয়েছে। তারপরও যতটুকু পারা যায় সচেতন থেকে ক্রিকেট বোর্ড থেকে যেভাবে নির্দেশনা দিয়েছে, তেমন করেই ফিটনেস নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করেছি আমরা।’

এই তারকা পেসার আরও বলছিলেন, ‘মিরপুরে মূলত ফিটনেস নিয়ে কাজ করছি আমি। বাগেরহাটে বোলিং সেভাবে করতে পারিনি, এখানে বোলিং নিয়ে কাজ করছি। আমার চোখ এখন শ্রীলঙ্কা সিরিজে। লক্ষ্য থাকবে মূলত দলে সুযোগ পাওয়া। একইসঙ্গে সুযোগ পেলে ভালো খেলার আপ্রাণ চেষ্টা করব। আমি সে অনুযায়ীই অনুশীলন করছি। ফিটনেস, বোলিং, স্কিল কিভাবে আরও ভালো করা যায় তা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি।’

নিজে যতটা প্রস্তুতই থাকুন শ্রীলঙ্কা সফরে দলে রুবেলের জায়গা মিলবে কিনা নিশ্চিত নয়। কারণ টেস্ট ক্রিকেটে এই পেসারের পারফরম্যান্স ভালো নয়। গত ১১ বছরের ক্যারিয়ারে ২৭ টেস্ট খেলে উইকেট পেয়েছেন মাত্র ৩৬টি। এ বছরের গত ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তান সফরে রাওয়ালপিন্ডি টেস্টে ১১৩ রানে নেন ৩ উইকেট।

এ কারণেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট থেকে বাদ পড়েন রুবেল। তবে শ্রীলঙ্কা সফরে সুযোগ পেলে নিজেকে উজাড় করে দেবেন। রুবেল সেই আশা নিয়েই ঢাকায় অনুশীলন শুরু করলেন।

লাইট নিউজ