বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

সুশান্তের ঘরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি চাবিওয়ালাকে

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই। দু’দিন আগে মুম্বাই পৌঁছে বান্দ্রায় সুশান্তের ফ্ল্যাট থেকেই মিশনে নেমে পড়েছে সংস্থাটি। গত ১৪ জুন যেভাবে সুশান্তের মরদেহ উদ্ধার করা হয় সেই ঘটনার আদল তৈরি করেছেন তদন্তকারীরা।

হেফাজতে নেওয়া হয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুতের রাঁধুনীকেও। এছাড়াও কুপার হাসপাতালের পাঁচ চিকিৎসককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে যারা বলিউডের এই অভিনেতার ময়নাতদন্ত করেছিলেন।

এরইমধ্যে প্রকাশ্যে এলো আরও একটি নতুন তথ্য। গত ১৪ জুন যে চাবিওয়ালা সুশান্তের ঘরের তালা ভেঙেছিলেন জানালেন সেদিনের ঘটনা।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক সেই চাবিওয়ালা ১৪ জুনের ঘটনার সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দিয়ে বলেন, “আমি দুপুর ১টা ৫ মিনিটে সুশান্তের রুমমেট সিদ্ধার্থ পিঠানির ফোন রিসিভ করি। তাকে আমার হোয়াটসঅ্যাপে তালার ছবি পাঠাতে বলেছিলাম। তারা পাঠিয়েছিল। এরপর আমি ওই বাড়ির ছয় তলায় গিয়ে আমার যন্ত্রপাতি দিয়ে তালা ভাঙার চেষ্টা করি।”

যোগ করে ওই চাবিওয়ালা আরও বলেন, “তালা ভাঙার সময় আমাকে বলা হয়েছিলো যদি ঘরের ভেতর থেকে কোন শব্দ পাই তাহলে যেনো কাজ বন্ধ করে দেই। সুশান্তের বাড়ির তালাটি কম্পিউটারাইজড ছিলো। তাই সেটি ভাঙার জন্য হাতুড়ি ব্যবহার করেছিলাম। তালা ভাঙার পর সিদ্ধার্থ আমাকে দুই হাজার রুপি দেন এবং ঘটনাস্থল থেকে চলে যেতে বলেন। কিন্তু ওই ঘরের ভেতরে কী হয়েছিলো সেটি আমাকে কেউ দেখতে দেননি।”

তবে এখনও পর্যন্ত কোনো তদন্তকারী সংস্থার থেকে কল পাননি বলে জানিয়েছেন ওই চাবিওয়ালা। তবে তলব করা হলে তিনি কর্মকর্তাদের সহযোগিতা করবেন বলে জানিয়েছেন।

লাইট নিউজ