বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম
বেনাপোল দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি অনিশ্চিতবিমান কার্যালয়ে দিনভর সৌদি প্রবাসীদের ভিড়; আজ যারা টিকিট পাননি তারা কাল নিতে পারবেনমনোনয়নপত্র জমা দিতে গিয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী নিখোঁজ২০ শতাংশের বেশি সুদ নেয়া যাবে না ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকদের কাছ থেকেডোবা-জলাশয় পরিষ্কারে বিভিন্ন দপ্তরে চিঠি দিচ্ছে ডিএনসিসি২১ সালের মধ্যে ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা রেল চলাচল শুরু হবে: রেলমন্ত্রী১৫ দিন সময় পেলেই এইচএসসি পরীক্ষা নিতে প্রস্তুত বোর্ডপদ্মা সেতুর রেল সংযোগে বড় ধরনের সমস্যা নেই: রেলমন্ত্রীসৌদি প্রবাসীদের সমস্যার কতটা সমাধান হলো!লাইসেন্স না থাকায় ১১ রেস্টুরেন্টকে প্রায় দেড় লাখ টাকা জরিমানা

বাংলাদেশের ৬.৮% প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস এডিবির

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) ৬ দশমিক ৮ শতাংশ বাড়তে পারে বলে প্রাক্কলণ করেছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক-এডিবি। করোনা মহামারির ধাক্কা সামলে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করায় এমন সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। মঙ্গলবার প্রকাশিত এডিবির ত্রৈমাসিক প্রতিবেদন এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট আউটলুকের সেপ্টেম্বর আপডেটে এই পূর্বাভাসের কথা বলা হয়েছে।

এডিবি বলছে, উৎপাদনের গতি বাড়ায় এবং বাংলাদেশি পণ্যের ক্রেতা দেশগুলোতে প্রবৃদ্ধি বাড়তে থাকায় বাংলাদেশের অর্থনীতি ধীরে ধীরে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। এই ধারা অব্যাহত থাকলে বাংলাদেশ ২০২১ সালে মূল্যস্ফীতিকে ৫ দশমিক ৫ শতাংশে এবং চলতি হিসাবের (কারেন্ট অ্যাকাউন্ট) ঘাটতিকে জিডিপির ১ দশমিক ১ শতাংশের মধ্যে বেঁধে রাখতে পারবে। তবে বাংলাদেশে কিংবা বাংলাদেশের রপ্তানি পণ্যের গন্তব্য দেশগুলোতে করোনাভাইরাস সঙ্কট দীর্ঘায়িত হলে ৬ দশমিক ৮ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন সম্ভব নাও হতে পারে।

বাংলাদেশে এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন পারকাশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস মহামারির ধাক্কা সামলে বাংলাদেশের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে। মহামারির ব্যবস্থাপনা ও স্বাস্থ্য খাতে বিপুল চাপের পরও সরকার যথাযথ প্রণোদনা ঘোষণা এবং সামাজিক নিরাপত্তার আওতা বাড়িয়ে, দারিদ্র্য ও ঝুঁকিতে থাকা জনগোষ্ঠীর মৌলিক চাহিদা পূরণের ব্যবস্থা নিয়ে অর্থনীতিকে ভালোই সামাল দিয়েছে।’

রেমিটেন্স ও রপ্তানি আয়ে সাম্প্রতিক ইতিবাচক ধারা এবং বিদেশি তহবিল সংগ্রহের পাশাপাশি সরকারের ঘোষিত প্রণোদনা ও সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচি বাস্তবায়নের ফলেই অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব হচ্ছে বলে মনে করছেন পারকাশ।

উল্লেখ্য, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন করা বাংলাদেশ ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্যও ৮ দশমিক ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছিল। কিন্তু করোনাভাইরাস মহামারির কারণে দুই মাসের লকডাউন আর বিশ্ব বাজারে স্থবিরতায় বড় ধাক্কা খায়।

লাইটনিউজ