বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

ঢাকা-৫ উপনির্বাচনে আ.লীগ প্রার্থী মনিরুলের জয়

ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কাজী মনিরুল ইসলাম মনু (নৌকা) ৪৫ হাজার ৬৪২ ভোট পেয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির সালাহউদ্দিন আহমেদ (ধানের শীষ) পেয়েছেন ২ হাজার ৯২৬ ভোট। নির্বাচনে ভোটের হার শতকরা ১০ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে অন্যান্য প্রার্থীদের মধ্যে জাতীয় পার্টির মীর আব্দুস সবুর (লাঙ্গল) পেয়েছেন ৪১৩ ভোট, বাংলাদেশ কংগ্রেসের আনছার রহমান শিকদার (ডাব) পেয়েছেন ৪৯ ভোট এবং ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আরিফুর রহমান সুমন মাস্টার (আম) পেয়েছেন ১১১ ভোট৷

রাজধানীর দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে ঢাকা-৫ উপ-নির্বাচনের ফল ঘোষণা করা হয়। ফল ঘোষণা করেন ঢাকা-৫ উপনির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা জি এম শাহতাব উদ্দিন।

এর আগে এই আসনে সকাল ৯টায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়, চলে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। এই আসনে ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হয়। নির্বাচনী এলাকার কোথাও কোনো গোলযোগ বা সহিংসতার ঘটনা ঘটেনি। নির্বাচনে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, ম্যাজিস্ট্রেট, নির্বাচন কমিশনের পর্যবেক্ষক দলসহ ব্যাপক নিরাপত্তার ব্যবস্থা ছিল।

উপনির্বাচন প্রসঙ্গে প্রধান নির্বাচন কমিশন (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। নির্বাচনে কোথাও কোনো অসুবিধার সৃষ্টি হয়নি। আমাদের কাছে কোনো অভিযোগ নেই।

নির্বাচনে ভোটারদের আগ্রহ কম থাকার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে কে এম হুদা বলেন, জাতীয় নির্বাচনে সারাদেশে ভোট হয়। এই খণ্ড নির্বাচনে ভোটারদের আগ্রহ কম থাকে। এ নির্বাচনে সংসদ সদস্য হওয়ার জন্য সরকার পরিবর্তনের সুযোগ নেই। দুই বা আড়াই বছরের জন্য নির্বাচিত হবেন, সেজন্য হয়তো প্রার্থী বা ভোটারদের মধ্যে তেমন আগ্রহ নেই। পাশাপাশি করোনার একটি বিষয় তো রয়েছে। এ জন্য মানুষ আতঙ্কিত। মানুষ ভোট কেন্দ্রে যেতে চায় না এ রকম একটা অবস্থা তো আছেই। এর মধ্যেও নির্বাচনের ট্রেন্ড ভালো।

গত ৬ মে হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে ঢাকা-৫ আসন শূন্য হয়। এরপর গত ৩ সেপ্টেম্বর এ আসনে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৪৮, ৪৯, ৫০, ৬০, ৬১, ৬২, ৬৪, ৬৫, ৬৬, ৬৭, ৬৮, ৬৯ ও ৭০ নম্বর ওয়ার্ড (ডেমরা ও মতিঝিল) নিয়ে ঢাকা-৫ আসন গঠিত। এ আসনে ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ২ লাখ ৪১ হাজার ৪৬৪ জন ও নারী ২ লাখ ২৯ হাজার ৬৬৫ জন। এই আসনে ১৮৭ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ করা হয়।

লাইটনিউজ