বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

মাসুদ রানার সোহানা হচ্ছেন পূজা চেরি

কাজী আনোয়ার হোসেনের থ্রিলার সিরিজ ‘মাসুদ রানা’ আসতে চলেছে বড় পর্দায়। ‘মাসুদ রানা’ সিনেমা তৈরির খবর প্রকাশিত হচ্ছে প্রায় দুবছর ধরে। এর আগে বেশ কয়েকবার এর শুটিং পিছিয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত ছবিটির শুটিংয়ের তারিখ চূড়ান্ত হলো।

ছবির প্রধান তিন চরিত্রের মধ্যে মাসুদ রানা ও সোহানা চরিত্রের অভিনয়শিল্পীর নাম আগেই প্রকাশ হয়েছে। মাসুদ রানার সোহানা হচ্ছেন পূজা চেরি। মাসুদ রানা সিরিজের চলচ্চিত্রের শুটিং শুরু হতে যাচ্ছে আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে। এদিনই শুটিঙে অং নেবেন পূজা। এই চরিত্রে অভিনয় করার জন্য বেশ প্রস্তুতি নিয়েছেন এই অভিনেত্রী। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে জাজ মাল্টিমিডিয়া।

মাসুদ রানা চরিত্রে অভিনয় করবেন রাসেল রানা। নবনীতা চরিত্রে অভিনয় করবেন সৈয়দা তিথি অমনি। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জাজ জানাচ্ছে, প্রাথমিক বাজেট ৩ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা । ফাইট পরিচালনা করবে বাংলাদেশ, চেন্নাই ও ইন্দোনেশিয়ার ফাইট মাস্টার। শুটিং হবে ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাঙ্গামাটি, বান্দরবান, কক্সবাজার ও ইন্দোনেশিয়ায়।

এটা আর দশটা সিনেমার মতো না উল্লেখ করে জাজ তাদের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলছে, অনেকেই মনে করছে, আমরা গল্পের কপি রাইট নিলাম আর সিনেমা বানিয়ে ফেললাম । বিষয়টা তেমন নয়। আমরা সব সময় এটা মাথায় রাখছি যে, এটা মাসুদ রানা । এটা অন্য ১০টা সিনেমার মতো না। এই সিনেমা নিয়ে দর্শকের প্রতাশ্যা আকাশচুম্বী । আর তাই, এটা নিয়ে দীর্ঘ দিন যাবত আমাদের কর্মযজ্ঞ চলছে। সেই কপি রাইট পাওয়ার পর থেকেই।

জাজ বলছে প্রথম ধাপে ৩০,০০০ ছেলের মাঝ থেকে মাসুদ রানাকে খুঁজে বের করা ছিল খুব কঠিন কাজ । একই সাথে কাজি আনোয়ার হোসেন স্যার এর গল্পকে যুগোপযোগী ভাবে চিত্রনাট্য করা । তারপর চরিত্র গুলির যথাযথ অভিনেতা খুঁজে বের করা। তাদের কাস্ট করা। পরিশেষে – শেষ ১ মাস কমব্যাট ফাইট শেখা । যাতে পরে একশন দৃশ্য গুলির মাঝে দর্শক রিয়েলস্টিক খুঁজে পায় । আর অভিনেতা অভিনেত্রীরাও মাসুদ রানার জন্য যথেষ্ট পরিশ্রম করেছে।

মাসুদ রানা বাংলাদেশের জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক কাজী আনোয়ার হোসেন সৃষ্ট একটি কাহিনী-চরিত্র। ১৯৬৬ খ্রিষ্টাব্দে ধ্বংস পাহাড় প্রচ্ছদনামের প্রথম গ্রন্থটি থেকে শুরু করে সেবা প্রকাশনী থেকে মাসুদ রানা সিরিজে এই চরিত্রকে নিয়ে চার শতাধিক গুপ্তচরবৃত্তীয় কাহিনীর বই প্রকাশিত হয়েছে

লাইটনিউজ