বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

ভ্যাকসিন ছাড়া সুই পুশ করা সেই স্বাস্থ্য পরিদর্শক বহিষ্কার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার ভ্যাকসিন (টিকা) ছাড়াই সুই পুশ করা সেই সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক সাজেদা আফরিনকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) সন্ধ্যায় সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শককে সাময়িক বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা সিভিল সার্জন আবুল ফজল মোহাম্মদ সাহাবুদ্দিন খান।

রোববার (১ আগস্ট) দেলদুয়ার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ২নং বুথে টিকা দিচ্ছিলেন হাসপাতালের সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক সাজেদা আফরিন। এ সময় ২০ জনকে ভ্যাকসিন ছাড়াই সুই পুশ করেন তিনি। পরে এ ঘটনায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জেলার সহকারী সিভিল সার্জনকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করে। গঠিত কমিটি তদন্তে সত্যতা পেয়ে সোমবার (২ আগস্ট) সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়।

ঘটনার দিন টিকা-গ্রহণকারী উপজেলার পাথরাইল গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম বলেন, অন্যান্যদের মতো আমাকে ভ্যাকসিনের সুই পুশ করা হয়েছে। পরে এলাকায় গিয়ে জানতে পারি ভ্যাকসিন ছাড়াই শুধু সুই পুশ করা হয়েছে। এতে চিন্তিত হয়ে পড়েছি। এখন দ্বিধা-দ্বন্দ্বে রয়েছি, টিকা পেলাম না পেলাম না।

ওইদিন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে টিকা নেয়া ৪৫৪ জন ব্যক্তি এই বিপাকে পড়েছেন। তারা স্বাস্থ্য বিভাগের এমন অবহেলার জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি করেছেন।

দেলদুয়ার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (টিএইচও) ডা. প্রবীর কুমার বলেন, করোনার ভ্যাকসিন ছাড়াই সুই পুশ করার পর ফেলে দেয়া ২০টি ইনজেকশন জব্দ করা হয়। এছাড়া ওই ২০ ব্যক্তিকে শনাক্ত করার জন্য পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। টিকা দেয়ার তারিখের দিনের সকল কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে ভ্যাকসিন না পাওয়া ব্যক্তিদের পুনরায় ভ্যাকসিনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এছাড়া ঘটনার পর থেকেই সেই সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শককে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। বিকেলে তাকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

জেলা সিভিল সার্জন আবুল ফজল মোহাম্মদ সাহাবুদ্দিন আরটিভি নিউজকে বলেন, বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তদন্ত প্রতিবেদন পাঠানোর পর মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক সাজেদা আফরিনকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে। ওই দিন যারা টিকা গ্রহণ করেছেন (ভ্যাকসিন ছাড়াই) তাদের খুঁজে বের করা খুবই জটিল প্রক্রিয়া। যারা নিয়েছেন তাদের লাভ বা ক্ষতি হয়নি। তারা জানেন না যে টিকা নিয়েছেন কিনা। তাদের খুঁজে বের করার জন্য কাজ করছি।