বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে
শিরোনাম

বাবা, চাচার মতো সম্পর্ক ছিলো: সাইমন

নেতিবাচক চরিত্র দিয়েই দর্শকদের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন ঢালিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতা সাদেক বাচ্চু। তবে জীবনের শেষ বছরগুলোতে অভিনয়ে অনিয়মিত ছিলেন তিনি। আজ (১৪ সেপ্টেম্বর) এই অভিনেতার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০২০ সালের এই দিনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৬৬ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

সাদেক বাচ্চুর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে তাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেছেন চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক। ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, ‘আপনার সাথে কাজ করার সৌভাগ্য হয়নি! হয়নি পথ চলা! কিন্তু যোগাযোগ ছিলো সবসময়। বাবা ছাড়া ডাকতেন না। আমার আব্বু আর ছোট কাকা দুই নাম জুড়ে (সাদেক-বাচ্চু) আপনি। আমাদের সম্পর্কটাও ছিলো বাবা, চাচার মতো। ফোনে কথা হতো, দেখা হতো। মনে হতো কত আপন আপনার। শাসন করতেন, আদর করতেন, ভালোবাসতেন। আরো কতো কি…।’

প্রয়াত অভিনেতার আত্মার শান্তি কামনা করে সাইমন লিখেছেন, ‘ওপারে ভালো থাকবেন বাবা। মহান আল্লাহ্ আপনাকে অনেক শান্তিতে রাখবেন, কারণ আপনি অসম্ভব ভালো মানুষ। ভালো মানুষের যা যা গুণ থাকা দরকার সব আপনার মধ্যে ছিলো। আপনার এই চলে যাওয়া আমাদের কাঁদিয়েছে, কাঁদছে আমাদের চলচ্চিত্র! শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা রইলো।’

উল্লেখ্য, ১৯৫৫ সালের ১ জানুয়ারি চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন সাদেক বাচ্চু। ক্যারিয়ারে শুরুর দিকে টেলিভিশন ও মঞ্চে অভিনয় করে সুনাম কুড়িয়েছিলেন তিনি। পাঁচ দশকের ক্যারিয়ারে মঞ্চ, বেতার, টেলিভিশন ও সিনেমায় ছিল তার অবাধ বিচরণ। নায়ক আলমগীর পরিচালিত ‘একটি সিনেমার গল্প’ সিনেমায় অভিনয় করে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।

শহীদুল আমিন পরিচালিত ‘রামের সুমতি’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে যাত্রা শুরু করেন সাদেক বাচ্চু। বহুমাত্রিক এই অভিনেতার উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে- ‘জজ ব্যারিস্টার পুলিশ কমিশনার’, ‘জীবননদীর তীরে’, ‘জোর করে ভালোবাসা হয় না’, ‘তোমার মাঝে আমি’, ‘ঢাকা টু বোম্বে’, ‘ভালোবাসা জিন্দাবাদ’, ‘এক জবান’, ‘আমার স্বপ্ন আমার সংসার’, ‘মন বসে না পড়ার টেবিলে’, ‘বধূবরণ’, ‘ময়দান’, ‘আমার প্রাণের স্বামী’, ‘আনন্দ অশ্রু’, ‘প্রিয়জন’, ‘সুজন সখী’ প্রভৃতি।