বাংলা ও বিশ্বের সকল খবর এখানে

পীরগঞ্জের সহিংসতায় আদালতে সৈকত

রংপুরের পীরগঞ্জের সহিংসতার ঘটনার মূলহোতা সৈকত মণ্ডল ও রবিউল ইসলামকে আদালতে তোলা হয়েছে।

রোববার (২৪ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ৩টায় রংপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দেলোয়ার হোসেনের আদালতে আনা হয়। এ ঘটনায় আজ আরও ৪ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে মোট গ্রেপ্তারের সংখ্যা দাঁড়ালো ৬৪ জনে।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে আটক থাকা ৩৮ আসামিকে আদালতের নির্দেশে ৩ দিনের রিমান্ড শেষে রোববার (২৪ অক্টোবর) দুপুর ৩টায় রংপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দেলোয়ার হোসেনের আদালতে আনা হয়। আসামিরা কেউ স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত না হওয়ায় বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

অপরদিকে ঢাকার টঙ্গী থেকে গ্রেপ্তার হওয়া ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সৈকত মণ্ডল ও স্থানীয় মসজিদের ইমাম রবিউলকে রোববার (২৪ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ৩টার দিকে পীরগঞ্জ থেকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে আদালতে আনা হয়। তাদের দুই জনই আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হয়েছে বলে জানিয়েছে কোট সিএসআই শহিদুল ইসলাম। তবে তাদের এখনও জবানবন্দি গ্রহণ করা শুরু হয়নি বলে আদালত সূত্রে জানা গেছে।

পীরগঞ্জ থানার ওসি সরেস চন্দ্র এ তথ্য আরটিভি নিউজকে নিশ্চিত করে জানান, ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কৃত সৈকত মণ্ডলের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।