বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৫৬ পূর্বাহ্ন

অবশেষে বরখাস্ত ‘সর্বগ্রাসী মেম্বার’

লাইটনিউজ রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৭ জুন, ২০২০

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার রাজিবপুর ইউনিয়নের ৮নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. রইছ উদ্দিনকে অবশেষে সাময়িক বরাখাস্ত করা হয়েছে। এলাকার লোকজনের কাছ থেকে সরকারি বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা পাইয়ে দিতে হাজার হাজার টাকা নিয়ে আত্মসাতের ঘটনা প্রমানিত হওয়ায় ২০০৯ সালের ধারা ৩৪(১) অনুযায়ি তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। আজ বুধবার স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ নির্দেশনা আসে। এ খবরে এলাকার ভুক্তভোগিরা আনন্দে মিষ্টি বিতরণ করেছেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই মেম্বার নিজ ৮ নম্বর ওয়ার্ডের দশ গ্রামের লোকজনের কাছ থেকে জমি আছে ঘর নাই, বিধবা , বয়স্ক, প্রতিবন্ধীভাতা ছাড়াও নলকূপের ব্যবস্থা ও ১০ টাকা কেজি দরের চালের কার্ড পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে এক হাজার থেকে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত হাতিয়ে নেয়। এ অবস্থায় পর বছরের পর বছর পার হলেও দেনা করে আনা ওই সব টাকা ফেরত না পেয়ে ঋণের বোঝা সহ্য করতে না পেরে অনেকেই পথে বসেছেন। এ অবস্থায় টাকাফেরত চাইলে অনেকেই ওই মেম্বারের কাছে অপমানিত ও লাঞ্চিত হয়েছে। সর্বশেষ ওই মেম্বারের বিরুদ্ধে এলাকার লোকজন বিক্ষুব্ধ হলে ঘটনাটি নিয়ে কালের কণ্ঠে গত ৩১ মে ‘মেম্বাররে ২০ হাজার টেহা দিছি’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন ওই মেম্বারের বিরুদ্ধে তদন্তে পাঠান সহকারি কমিশনার ভূমি সাঈদা পারভীনকে। তিনি ঘটনা স্থলে গিয়ে ওই মেম্বারের বিরুদ্ধে শতভাগ প্রমান পেয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর প্রতিবেন জমা দেন। সেখান থেকে ২০০৯ সালের ৩৪(৪) এর ধারা অনুযায়ি মেম্বারকে সাময়িক বরাখাস্তের সুপারিশ করা হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন বলেন, রইছ উদ্দিনের বরখাস্তে প্রমান হয় দুর্নীতি করে কেউ ছাড় পায় না। এটা অন্যদের ক্ষেত্রে উদাহারণ হয়ে থাকবে।

লাইট নিউজ

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Lightnewsbd

Developer Design Host BD